kalerkantho

রবিবার । ২৬ মে ২০১৯। ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ২০ রমজান ১৪৪০

ফখরুল বললেন

দলের সব সিদ্ধান্ত যৌথ নেতৃত্বে হচ্ছে

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৩ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘আমরা আনন্দের সঙ্গে বলতে চাই, দেশনেত্রী খালেদা জিয়া কারাগারে যাওয়ার পরে আমরা একটা যৌথ নেতৃত্ব গড়ে তুলেছি। সেই যৌথ নেতৃত্বের মধ্য দিয়ে সমস্ত সিদ্ধান্ত নিয়ে আমরা সেই জনগণের কাছে যাচ্ছি। জনগণকে সঙ্গে নিয়ে, জনগণকে আন্দোলনে সম্পৃক্ত করে আজকে আমাদেরকে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার করতে হবে। আসুন, আমরা একসঙ্গে একটি গণ-আন্দোলন সৃষ্টি করি, যে আন্দোলনের মধ্য দিয়ে আমরা দেশনেত্রীকে মুক্ত করব, গণতন্ত্রকে মুক্ত করব, তারেক রহমানকে দেশে ফিরিয়ে আনতে পারব।’

গতকাল সোমবার বিকেলে জাতীয় প্রেস ক্লাব মিলনায়তনে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় সাবেক ও বর্তমান ছাত্র ফোরামের উদ্যোগে খালেদা জিয়ার মুক্তি ও তারেক রহমানের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে আয়োজিত সমাবেশে ফখরুল এ কথা বলেন।

ফখরুল বলেন, ‘ছাত্ররা সব সময়ই সবচেয়ে বেশি ত্যাগ স্বীকার করেছে। এই ছাত্ররা ভাষা আন্দোলনে রক্ত দিয়েছে, ঊনসত্তর, নব্বইয়ের আন্দোলনে রক্ত দিয়েছে, একাত্তরের স্বাধীনতাযুদ্ধে তারা বুকের রক্ত দিয়ে স্বাধীনতা অর্জন করেছে। আজকে ছাত্র বলুন, তরুণ বলুন, যুবক বলুন, তাদের সবার ওপর মহান দায়িত্ব এসেছে। সেই দায়িত্ব হচ্ছে এ দেশকে রক্ষা করার জন্য, গণতন্ত্রকে রক্ষা করার জন্য, আমাদের গণতন্ত্রের মাতা দেশনেত্রীকে মুক্ত করার জন্য, তারেক রহমানকে দেশে ফিরিয়ে আনার জন্য আমাদের সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে দুর্বার আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে।’

তিনি বলেন, ‘আজকে সুপরিকল্পিতভাবে চক্রান্তের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশকে গণতন্ত্রবিহীন করা হচ্ছে। সে জন্যই গণতন্ত্রের যাঁরা নেতা, যাঁরা নেতৃত্ব দিয়েছেন, অতীতে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করেছেন—তাঁদের রাজনীতি থেকে দূরে সরিয়ে দেওয়ার চক্রান্ত করা হচ্ছে। অত্যন্ত সুপরিকল্পিতভাবে, সচেতনভাবে মানুষের গণতান্ত্রিক অধিকার কেড়ে নিয়ে, রাষ্ট্রের সমস্ত গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠান ভেঙে দিয়ে দেশে একদলীয় শাসনব্যবস্থা প্রবর্তন করার চেষ্টা করা হচ্ছে। লক্ষ করে দেখবেন, রাষ্ট্রের সমস্ত যন্ত্রগুলোকে ব্যবহার করা হচ্ছে। বিচার বিভাগ, প্রশাসন থেকে শুরু করে এমনকি মিডিয়া পর্যন্ত তারা এর হাত থেকে রেহাই দিচ্ছে না। আমরা যারা গণতন্ত্রে বিশ্বাস করি, জনগণের সার্বভৌমত্বে বিশ্বাস করি তাদের আজকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।’

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘শ্রীলঙ্কায় পর পর তিনটি জায়গায় বোমা বিস্ফোরণ ঘটেছে। আমরা এই ঘটনার নিন্দা জানিয়েছি। যাঁরা হতাহত হয়েছেন তাঁদের সঙ্গে একাত্মতা ঘোষণা করেছি এবং যাঁরা আহত হয়েছেন তাঁদের প্রতি সহানুভূতি প্রকাশ করেছি, যাতে তাঁরা দ্রুত সুস্থ হয়ে ওঠেন।’

মন্তব্য