kalerkantho

বুধবার। ১৯ জুন ২০১৯। ৫ আষাঢ় ১৪২৬। ১৫ শাওয়াল ১৪৪০

দুর্ঘটনায় হাত হারানোর পর রাজীবের মৃত্যু

এক বছর পার হলেও তদন্তই শেষ হয়নি

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৯ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ১ মিনিটে



রাজধানীর ব্যস্ত সড়কে দুই বাসের চাপায় হাত বিচ্ছিন্ন হয়ে যাওয়ার পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান রাজিব হোসেন। তিতুমীর কলেজের এই শিক্ষার্থী এমন মর্মান্তিক দুর্ঘটনার শিকার হন এক বছরেরও বেশি সময় আগে। অথচ এই ঘটনায় দায়ের হওয়া মামলার তদন্তই শেষ হয়নি এখনো।

রাজিব হত্যা মামলায় তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের দিন ধার্য ছিল গতকাল বৃহস্পতিবার। তদন্ত কর্মকর্তা এই দিন কোনো প্রতিবেদন দাখিল করেননি। এ অবস্থায় তদন্ত প্রতিবেদনের জন্য ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক সরাফুজ্জামান আনসারী আগামী ২২ মে নতুন তারিখ ধার্য করেছেন।

গত বছরের ৩ এপ্রিল দুপুরে বিআরটিসির একটি দোতলা বাসের পেছনের ফটকে দাঁড়িয়ে গন্তব্যে যাচ্ছিলেন মহাখালীর সরকারি তিতুমীর কলেজের স্নাতক দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র রাজীব হোসেন। বাসটি হোটেল সোনারগাঁওয়ের বিপরীতে পান্থকুঞ্জ পার্কের সামনে পৌঁছালে হঠাৎ পেছন থেকে স্বজন পরিবহনের একটি বাস বিআরটিসি বাসটির গা ঘেঁষে অতিক্রম করে। দুই বাসের চাপে গাড়ির পেছনের দরোজায় দাঁড়িয়ে থাকা রাজীবের হাত শরীর থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা