kalerkantho

সোমবার । ২৪ জুন ২০১৯। ১০ আষাঢ় ১৪২৬। ২০ শাওয়াল ১৪৪০

সাংবাদিকদের ফখরুল

গণতন্ত্র ফিরিয়ে এনে জনগণকে মুক্ত করব

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৭ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কারাবন্দি খালেদা জিয়ার পক্ষে মহান স্বাধীনতা দিবসে জাতীয় স্মৃতিসৌধে এবং জিয়াউর রহমানের কবরে শ্রদ্ধার্ঘ্য অর্পণ করেছেন বিএনপির নেতারা। শেরেবাংলানগরে জিয়াউর রহমানের কবরে শ্রদ্ধা নিবেদনের পর বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সাংবাদিকদের বলেছেন, ‘আমরা শপথ গ্রহণ করেছি, দেশনেত্রীর মুক্তির জন্য আমরা আন্দোলন করব, গণতন্ত্রের মুক্তির জন্য আন্দোলন করব। দেশনেত্রীকে মুক্ত করে আমরা গণতন্ত্রকে ফিরিয়ে নিয়ে এসে এ দেশের জনগণকে মুক্ত করব।’

গতকাল মঙ্গলবার সকাল ৯টায় দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুলের নেতৃত্বে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্যরা জাতীয় স্মৃতিসৌধের বেদিমূলে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধা জানান এবং কিছু সময় নীরবে দাঁড়িয়ে থাকেন। পরে সকাল ১০টার দিকে নেতারা যান শেরেবাংলানগরে। সেখানে কয়েক হাজার নেতাকর্মীকে নিয়ে তাঁরা দলের প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের কবরে পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন। কবর প্রাঙ্গণে প্রয়াত নেতার আত্মার মাগফেরাত কামনা করে বিশেষ মোনাজাতে অংশ নেন নেতারা।

পরে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে ফখরুল বলেন, তাঁরা দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ও ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের পক্ষ থেকে জিয়াউর রহমানের কবরে শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন। এর আগে জাতীয় স্মৃতিসৌধে মুক্তিযুদ্ধের শহীদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন। তিনি বলেন, ‘আজকে দুর্ভাগ্য আমাদের, স্বাধীনতার এত বছর পরও স্বাধীনতার যে মূল চেতনা গণতন্ত্রকে ধূলিসাৎ করে দেওয়া হয়েছে, গণতন্ত্রকে হরণ করা হয়েছে। সব প্রতিষ্ঠানকে আজকে ধ্বংস করে ফেলা হচ্ছে। বাংলাদেশকে একটা ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত করা হয়েছে।’

দুটি কর্মসূচিতেই উপস্থিত ছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ড. আবদুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, কেন্দ্রীয় নেতা আলতাফ হোসেন চৌধুরী প্রমুখ।

মন্তব্য