kalerkantho

রবিবার। ১৬ জুন ২০১৯। ২ আষাঢ় ১৪২৬। ১২ শাওয়াল ১৪৪০

বুড়িগঙ্গায় লঞ্চের ধাক্কায় নৌকাডুবি

বোনের বিয়েতে যাওয়া হলো না জমসেদার

দুই লাশ উদ্ধার, এখনো নিখোঁজ চারজন

আলতাফ হোসেন মিন্টু, কেরানীগঞ্জ   

৯ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



শুক্রবার শরীয়তপুরের সখীপুর থানার দক্ষিণ তারাবুনিয়ার জাফর আলী মালেরকান্দি গ্রামে কামাল চৌকদারের মেয়ে খাদিজার বিয়ে। বিয়ের অনুষ্ঠানে যোগ দিতে খাদিজার বোন জমসেদা গ্রামের বাড়িতে যাবেন লঞ্চে করে। বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে স্বামী-সন্তান নিয়ে কামরাঙ্গীর চর এলাকা থেকে একটি খেয়া নৌকায় করে সদরঘাটের উদ্দেশে রওনা দেন জমসেদা। সঙ্গে ছিলেন চাচাতো ভাই শাহজালাল, ভাইয়ের স্ত্রী সাহিদা ও তাঁদের দুই মেয়ে মিম ও মাহি। রাত সাড়ে ১০টার দিকে সদরঘাটের ২ নম্বর টার্মিনালের কাছে বুড়িগঙ্গায় বরিশালগামী লঞ্চ এমভি সুরভী-৭-এর ধাক্কায় ডুবে যায় নৌকাটি। আশপাশের লোকজন শাহজালালকে উদ্ধার করে পঙ্গু হাসপাতালে নেয়। নিখোঁজ থাকে ছয়জন।

গতকাল শুক্রবার সকালে কোস্ট গার্ড ও ডুবুরি দল বুড়িগঙ্গা নদীর মিল ব্যারাক পুলিশ লাইনের কাছ থেকে জামসেদার লাশ ও দুপুরে পুলিশ ধলেশ্বর বালুর ঘাট এলাকা থেকে সাহিদার লাশ উদ্ধার করেছে। লাশ দুটি মিটফোর্ড হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এখনো নিখোঁজ রয়েছে চারজন।

সুরভী-৭ লঞ্চের পাখার আঘাতে শাহজালালের দুই পা বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। পেশায় দর্জি শাহজালাল ঢাকার কামরাঙ্গীর চরে সপরিবারে ভাড়া থাকেন। পঙ্গু হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে শাহজালালের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

পানিসম্পদ উপমন্ত্রী এ কে এম এনামুল হক শামীম গতকাল সকালে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে গণমাধ্যমকর্মীদের উদ্দেশে বলেন, অভিযুক্ত সুরভী-৭-এর বিরুদ্ধে মামলাসহ যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বিআইডাব্লিউটিএ গতকাল তিন সদস্যের একটি তদন্ত টিম গঠন করেছে। আগামী তিন দিনের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন দেওয়ার পর যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন কর্মকর্তারা।

গতকাল বিকেল ৫টার পর উদ্ধার অভিযান স্থগিত রাখা হয়। আজ সকাল থেকে নিখোঁজদের উদ্ধারে আবার অভিযান চালাবেন ডুবুরিরা। এদিকে ঘটনার পরপরই সদরঘাট ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল ও নৌ পুলিশ নিখোঁজদের উদ্ধারে তৎপরতা চালিয়েছিল। আর ঘাতক সুরভী-৭ লঞ্চটি চলে যায় বরিশালের উদ্দেশে।

দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার ওসি মোহাম্মদ শাহজামান বলেন, ‘দুই নারীর লাশ উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে। কোস্ট গার্ড, ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল, নৌ পুলিশ ও আমাদের থানা পুলিশের উদ্ধার অভিযান অব্যাহত রয়েছে। তবে এ ঘটনায় এ পর্যন্ত কেউ অভিযোগ নিয়ে থানায় আসেনি।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা