kalerkantho

বুধবার । ২২ মে ২০১৯। ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ১৬ রমজান ১৪৪০

পবার গোলটেবিলে উদ্বেগ

অনিয়ন্ত্রিত ব্যবহারে নষ্ট হচ্ছে অ্যান্টিবায়োটিকের কার্যকারিতা

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৮ নভেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



অনিয়ন্ত্রিত বা অতিরিক্ত অ্যান্টিবায়োটিক ওষুধের ব্যবহারের ফলে সংক্রমণ ঠেকাতে অনেক অ্যান্টিবায়োটিকই ব্যর্থ হচ্ছে। অ্যান্টিবায়োটিকের অকার্যকারিতা বাংলাদেশসহ বিশ্বের অন্যান্য দেশে জনস্বাস্থ্যের জন্য হুমকি হয়ে দাঁড়িয়েছে। গতকাল শনিবার পরিবেশ বাঁচাও আন্দোলন (পবা) আয়োজিত “অ্যান্টিবায়োটিক প্রতিরোধী ‘সুপার-বাগ’ : ঝুঁকিতে জনস্বাস্থ্য” শীর্ষক এক গোলটেবিল বৈঠকে বক্তারা এই অভিমত ব্যক্ত করেন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মেসি অনুষদের অধ্যাপক এ বি এম ফারুকের সভাপতিত্বে এ গোলটেবিল বৈঠকে আলোচনা করেন ডা. ফারিজা ফাইরোজ, পবার চেয়ারম্যান আবু নাসের খান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ডা. লেলিন চৌধুরী, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরামর্শক ডা. মু. মুশতাক হোসেন, বিসিএসআইআরের সাবেক পরিচালক অধ্যাপক ড. কে এম ফরমুজুল হক, পবার সম্পাদক এম এ ওয়াহেদ, বানিপার সভাপতি প্রকৌশলী মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেনসহ অন্যরা।

আলোচকরা বলেন, অ্যান্টিবায়োটিকের অকার্যকারিতার কারণ হচ্ছে—অপ্রয়োজনে অ্যান্টিবায়োটিক সেবন করা, রেজিস্টার্ড স্বাস্থ্যসেবা প্রদানকারীর পরামর্শ ব্যতিরেকে ভুল অ্যান্টিবায়োটিক সেবন করা, স্বাস্থ্যসেবা প্রদানকারীর পরামর্শ অনুযায়ী কোর্স সম্পন্ন না করা, অ্যান্টিবায়োটিক-মিশ্রিত পশুখাদ্য এবং পোলট্রি ফিড গ্রহণকারী প্রাণীর মাংস খাওয়া, পরিবারের সদস্য, বন্ধু-বান্ধব এবং পাড়া-প্রতিবেশীদের সঙ্গে অ্যান্টিবায়োটিক ওষুধ শেয়ার বা ভাগাভাগি করে নেওয়া, প্রেসক্রিপশন ছাড়া অ্যান্টিবায়োটিক ওষুধ বিক্রি।

মন্তব্য