kalerkantho

বুধবার । ২২ মে ২০১৯। ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ১৬ রমজান ১৪৪০

বিএনপি-জামায়াত বিজয়ের মাস এলেই ভয় পায় : নাসিম

জেলা-উপজেলায় বিজয় মঞ্চ করবে ১৪ দল

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৮ নভেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



আওয়ামী লীগ সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও ১৪ দলের মুখপাত্র মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, ডিসেম্বর বিজয়ের মাস। বিজয়ের মাস এলে জাতি ঐক্যবদ্ধ হয় এবং ঐক্যবদ্ধভাবে লড়াই করে অপশক্তির বিরুদ্ধে। ডিসেম্বর মাস এলেই কী কারণে যেন বিএনপি-জামায়াত জোট ভয় পায়। হয়তো তাদের একাত্তরের পরাজয়ের কথা মনে পড়ে যায়।

বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে গতকাল শনিবার জোটের বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন মোহাম্মদ নাসিম। এ সময় বিএনপির নির্বাচন পেছানোর দাবির প্রতিক্রিয়ায় তিনি এসব কথা বলেন। নাসিম বলেন, নির্বাচন কমিশন তাদের অনুরোধ রেখে একবার তারিখ পরিবর্তন করল। আওয়ামী লীগ কিংবা ১৪ দল কেউ কোনো আপত্তি করেনি। ডিসেম্বর মাসে তারা নির্বাচন করতে চায় না। এ জন্য আমাদের ধারণা, ডিসেম্বর মাস এলে তারা ভয় পায়, আতঙ্কিত হয় হেরে যাওয়ার ভয়ে।

নয়াপল্টনে পুলিশের ওপর হামলার নিন্দা জানিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী নাসিম বলেন, কেন পুলিশকে আক্রমণ করা হলো? এবারও দেখলাম বাঁশের লাঠি নিয়ে নারী-পুরুষ সবাই দাঁড়িয়ে আছে। মনে হয় আগে থেকেই তারা প্রস্তুত ছিল। তাদের চরিত্র এখনো পরিবর্তন হয়নি।

জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট নেতা ড. কামালের তীব্র সমালোচনা করে মোহাম্মদ নাসিম বলেন, কামাল হোসেন সাহেবের এত অধঃপতন হলো! এটা সত্যি খুব দুঃখজনক। জ্বালাও-পোড়াও হলো, পুলিশের ওপর হামলা হলো, তিনি একটাও কথা বললেন না। কামাল হোসেন এতটা বিক্রি হয়ে গেলেন অপশক্তির কাছে! বিস্মিত হলাম।

বৈঠকের সিদ্ধান্ত সম্পর্কে নাসিম জানান, নির্বাচনে প্রচারের কাজে ১৪ দলের পক্ষ থেকে একটি টিম করে দেওয়া হবে। প্রচার টিম গ্রামগঞ্জে সভা-সমাবেশ করবে। এ ছাড়া এবার আড়ম্বরপূর্ণভাবে বিজয় দিবস উদ্‌যাপন করা হবে। এ উপলক্ষে প্রতিটি জেলা-উপজেলায় বিজয় মঞ্চ তৈরি করে এই মঞ্চে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস, বিজয়ের ইতিহাসসহ নির্বাচনী প্রচার চালানো হবে।

বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন জাসদ সভাপতি ও তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু, সাধারণ সম্পাদক শিরিন আখতার, জাতীয় পার্টির (জেপি) মহাসচিব শেখ শহিদুল ইসলাম, আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, বাংলাদেশ জাসদের সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হক প্রধান, তরীকত ফেডারেশনের সভাপতি নজিবুল বশর মাইজভাণ্ডারী ও সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ বড়ুয়া।

 

মন্তব্য