kalerkantho

শনিবার । ২৫ মে ২০১৯। ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ১৯ রমজান ১৪৪০

নেপিডোর বিবৃতি

আইসিসির কোনো বিচারিক এখতিয়ার নেই মিয়ানমারে

কূটনৈতিক প্রতিবেদক   

১০ আগস্ট, ২০১৮ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



রোহিঙ্গা নিধনযজ্ঞ নিয়ে আন্তর্জাতিক ফৌজদারি আদালতের (আইসিসি) উদ্যোগ প্রত্যাখ্যান করেছে মিয়ানমার। গতকাল বৃহস্পতিবার দেশটির স্টেট কাউন্সেলর অং সান সু চির দপ্তর প্রকাশিত এক বিবৃতিতে আইসিসিকে মিয়ানমারে বিচারিক এখতিয়ার প্রশ্নেও আবেদন খারিজ করার আহ্বান জানানো হয়েছে। একই সঙ্গে মিয়ানমার আইসিসিকে কটাক্ষ করে নিজের গড়া তদন্ত কমিশনের পক্ষেই সাফাই গেয়েছে।

এদিকে পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলীর নেতৃত্বে বাংলাদেশ প্রতিনিধিদল গতকাল চার দিনের মিয়ানমার সফর শুরু করেছে। দেশটির নেতাদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করা ছাড়াও প্রতিনিধিদলটি আগামীকাল শনিবার রাখাইন রাজ্য পরিস্থিতি সরেজমিন দেখবে।

রাখাইন রাজ্য থেকে রোহিঙ্গাদের গণবাস্তুচ্যুতির প্রেক্ষাপটে মিয়ানমারের ওপর আইসিসি তার বিচারিক ক্ষমতা প্রয়োগ করতে পারে কি না সে বিষয়ে ২৭ জুলাইয়ের মধ্যে প্রকাশ্যে বা গোপনে মতামত দিতে অনুরোধ জানিয়েছিল। মিয়ানমার ওই অনুরোধে সাড়া না দিয়ে গতকাল এক বিবৃতিতে বলেছে, তারা আইসিসির সদস্য নয়। সংস্থাটির প্রতি তাদের আস্থাও নেই। তাই তারা আইসিসির অনুরোধের আনুষ্ঠানিক কোনো জবাব দেয়নি।

মিয়ানমার দাবি করেছে, আইসিসির কাছে তাদের কোনো বাধ্যবাধকতা নেই। মিয়ানমার সদস্য না হওয়া সত্ত্বেও তার কাছে বিচারিক এখতিয়ার বিষয়ে জানতে চেয়ে এক ‘বিপজ্জনক’ নজির সৃষ্টি করেছে সংস্থাটি। মিয়ানমার আরো দাবি করেছে, আইসিসির প্রসিকিউটর দেশটির সার্বভৌমত্ব ও অখণ্ডতা রক্ষার প্রয়োজনীয়তা বিষয়ে নিরাপত্তা পরিষদের সভাপতির বিবৃতি অগ্রাহ্য করেছে। আইসিসির প্রসিকিউটর আদালতের আইনি বিধানগুলো যথাযথভাবে প্রয়োগ করেননি বলেও মিয়ানমার বিবৃতিতে উল্লেখ করেছে।

মিয়ানমার আইসিসির কার্যক্রমের স্বচ্ছতা নিয়ে প্রশ্ন তুলে তার ওপর বিচারিক এখতিয়ার প্রত্যাখ্যান করেছে।

মন্তব্য