kalerkantho

শনিবার । ২৫ মে ২০১৯। ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ১৯ রমজান ১৪৪০

শাহরাস্তিতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদক কারবারি নিহত

চারঘাটে আরেকজন গুলিবিদ্ধ

চাঁদপুর প্রতিনিধি ও নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী   

১০ আগস্ট, ২০১৮ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



চাঁদপুরের শাহরাস্তিতে গতকাল বৃহস্পতিবার পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে এক মাদক কারবারি নিহত হয়েছে। ভোরে উপজেলার উত্তর সূচিপাড়া ইউনিয়নের চুনতিয়া সেতুর পাশে এই বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। এ সময় একটি পাইপগান, ছয় রাউন্ড গুলি এবং বেশ কিছু ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। তবে নিহত মাদক কারবারির পরিচয় পাওয়া যায়নি।

শাহরাস্তি থানার ওসি মিজানুর রহমান জানান, এক দল কারবারি মাদকের চালান নিয়ে পাশের উপজেলা হাজীগঞ্জে যাওয়ার জন্য অপেক্ষা করছিল। এমন তথ্য জানতে পেরে পুলিশ নিয়ে তিনি সেখানে অভিযান চালান। এ সময় মাদক কারবারিরা পুলিশের ওপর হামলা চালায়। পুলিশও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি ছুড়লে ঘটনাস্থলে একজন মারা যান। অন্যরা এ সময় পালিয়ে যায়।

ওসি দাবি করেছেন, এ সময় তিন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। আহতদের শাহরাস্তি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। নিহতের পরিচয় নিশ্চিত হওয়ার জন্য পুলিশ তথ্য-উপাত্ত সংগ্রহ করছে। এদিকে অজ্ঞাতনামা নিহত ওই ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য চাঁদপুর জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশের পক্ষ থেকে আলাদা দুটি মামলা করা হয়েছে।

এদিকে চারঘাটে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মানিক মিয়া নামে এক মাদক কারবারি গুলিবিদ্ধ হয়েছে। গত বুধবার রাতে উপজেলার মোক্তারপুর বালুরঘাটে এ ঘটনা ঘটে। মানিক উপজেলার গৌড়শহরপুর গ্রামের সাহাবুদ্দিনের ছেলে। এ সময় তিন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন।

পুলিশ জানায়, মানিকের নামে বিভিন্ন থানায় ১৬টি মামলা রয়েছে। এর মধ্যে মাদক মামলা রয়েছে ১৪টি। চারঘাট মডেল থানার ওসি নজরুল ইসলাম জানান, পুলিশ উপজেলার মোক্তারপুর বালুরঘাট এলাকায় অভিযান চালায়। এ সময় বালুঘাট দিয়ে এক দল মাদক কারবারি মাদকপাচার করার চেষ্টা করছিল। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে তারা গুলি ছোড়ে। পুলিশও পাল্টা গুলি ছুড়লে একজন আহত হয়। এ সময় অন্যরা পালিয়ে যায়। পরে আহত ব্যক্তিকে উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তার বাঁ পায়ে গুলি লেগেছে। ঘটনাস্থল থেকে একটি বিদেশি পিস্তল, এক রাউন্ড গুলি, একটি ম্যাগাজিন, একটি ধারালো হাঁসুয়া ও ৫০ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়েছে।

 

 

মন্তব্য