kalerkantho

শুক্রবার । ২৪ মে ২০১৯। ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ১৮ রমজান ১৪৪০

ফেসবুক-অনলাইনে ‘অপপ্রচার’

বুয়েট ছাত্র ও জুম বাংলার সিইও রিমান্ডে

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১০ আগস্ট, ২০১৮ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



শিক্ষার্থীদের নিরাপদ সড়কের দাবির আন্দোলনকে ভিন্ন দিকে প্রবাহিত করতে ইন্টারনেট মাধ্যমে অপপ্রচারের অভিযোগে আরো দুজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তাঁরা হলেন অনলাইন নিউজ পোর্টাল জুম বাংলার প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) ইউসুফ চৌধুরী ও বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ছাত্র দাইয়ান আলম। গতকাল বৃহস্পতিবার আদালত তাঁদের হেফাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের (রিমান্ড) অনুমতি দিয়েছেন।

গত বুধবার রাতে রাজধানীর দুটি এলাকা থেকে ইউসুফ চৌধুরী ও দাইয়ান আলমকে গ্রেপ্তার করা হয় বলে জানিয়েছেন ঢাকা মহানগর পুলিশের সাইবার নিরাপত্তা ও অপরাধ দমন বিভাগের উপকমিশনার মো. আলিমুজ্জামান।

দুজনের মধ্যে দাইয়ানকে রমনা থানায় গত ৫ আগস্ট দায়ের করা মামলায় এবং ইউসুফকে একই থানায় ১ আগস্ট দায়ের করা মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে। গ্রেপ্তারের সময় তাঁদের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী কম্পিউটার, মোবাইল ফোনসেট, ল্যাপটপ, ফেসবুক আইডি ও গ্রুপগুলোর গুরুত্বপূর্ণ তথ্য জব্দ করা হয়েছে।

দুজন সম্পর্কে প্রাথমিক তদন্তে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে সাইবার ক্রাইম ইউনিট সূত্র জানায়, জুম বাংলা অনেক দিন ধরে অনলাইনে ‘হলুদ সাংবাদিকতা’ করে যাচ্ছে। কোনো তথ্য-প্রমাণ ছাড়াই ভুয়া নিউজ প্রচার করে সাংবাদিকতার নৈতিকতার বাইরে গিয়ে মিথ্যা ও ভিত্তিহীন সংবাদ প্রচার করে জনগণকে বিভ্রান্ত করছে। সম্প্রতি শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের সময় পুলিশের অযৌক্তিক ও অপ্রাসঙ্গিক ছবি প্রকাশ করে উসকানি দেয় জুম বাংলা। আর বুয়েটের ছাত্র দাইয়ান ফেসবুক লাইভ এবং পোস্টসহ নানা কনটেন্ট পোস্ট ও শেয়ার করে স্বাভাবিক আন্দোলনকে সহিংস করতে ভূমিকা রাখেন বলে তদন্তে জানা যায়।

পুলিশ ও আদালত সূত্র জানায়, জুম বাংলার সিইও ইউসুফ চৌধুরী ও বুয়েট ছাত্র দাইয়ান আলমের সাত দিনের রিমান্ড চেয়ে গতকাল তাঁদের আদালতে পাঠানো হয়। শুনানি শেষে মহানগর হাকিম ফাহাত বিন আমিন চৌধুরী ইউসুফের এক দিনের এবং দাইয়ানের চার দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করলে তাঁদের আসল উদ্দেশ্য জানা যাবে জানিয়ে সাইবার ক্রাইম ইউনিটের এক কর্মকর্তা বলেন, শিক্ষার্থীদের নিরাপদ সড়কের দাবির আন্দোলনকে ভিন্ন দিকে প্রবাহিত করতে ইন্টারনেট মাধ্যমে নানা ধরনের মিথ্যা তথ্য ছড়িয়ে গুজব রটান গ্রেপ্তারকৃত এই দুজন।

এর আগেও গুজব ছড়ানো ও অপপ্রচার চালানোর অভিযোগে বেশ কয়েকজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

মন্তব্য