kalerkantho

সোমবার। ২৭ মে ২০১৯। ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ২১ রমজান ১৪৪০

গুজব ছড়ানোর অভিযোগে ভাসানী বিশ্ববিদ্যালয়ের ছয় শিক্ষার্থী সাময়িক বহিষ্কার

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি   

১০ আগস্ট, ২০১৮ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলনের সময় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গুজব ছড়ানো ও কটূক্তির অভিযোগে মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছয় শিক্ষার্থীকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে। অন্য দুজনকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. সিরাজুল ইসলাম জানান, ছয় শিক্ষার্থীর বিরুদ্ধে বিভিন্ন অভিযোগ মিলেছে। তাদের কেন স্থায়ী বহিষ্কার করা হবে না তা জানাতে সাত কর্মদিবস সময় দেওয়া হয়েছে। অন্য দুজন শিক্ষার্থীকে কারণ দর্শানোর জন্য বলা হয়েছে।

সূত্র জানায়, সাময়িক বহিষ্কৃত শিক্ষার্থীদের মধ্যে এনভায়রনমেন্টাল সায়েন্স অ্যান্ড রিসোর্স ম্যানেজমেন্ট বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষ প্রথম সেমিস্টারের জাকিয়া রহমান ও জাকিয়া বেগম এবং পরিসংখ্যান বিভাগের তৃতীয় বর্ষ প্রথম সেমিস্টারের শিক্ষার্থী সুমাইয়া ইসলাম সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে কটূক্তি করেছেন। ছাত্রলীগকে নিয়ে কটূক্তি করার অভিযোগ রয়েছে কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষ প্রথম সেমিস্টারের শিক্ষার্থী তানবীর হাসানের বিরুদ্ধে। গুজব ছড়ানোর অভিযোগে পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষ প্রথম সেমিস্টারের শিক্ষার্থী ওবায়দুল্লাহ ও বিভিন্নজনের সঙ্গে যোগাযোগ করে নাশকতা সৃষ্টির অভিযোগে গণিত বিভাগের প্রথম বর্ষ দ্বিতীয় সেমিস্টারের শিক্ষার্থী মুহা. ইমরান হোসেনকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে। আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে কটূক্তি করার অভিযোগে ক্রিমিনোলজি অ্যান্ড পুলিশ সায়েন্স বিভাগের তৃতীয় বর্ষ দ্বিতীয় সেমিস্টারের শিক্ষার্থী মেহনাজ জামান ও কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের তৃতীয় বর্ষ প্রথম সেমিস্টারের শিক্ষার্থী শুভ্রা দেবনাথকে কারণ দর্শানোর নোটিশ প্রদান করা হয়েছে। সাময়িক বহিষ্কৃত ছয় শিক্ষার্থীকে কেন স্থায়ী বহিষ্কার করা হবে না তা জানাতে এবং দুই শিক্ষার্থীকে কারণ দর্শানোর জন্য সাত  কর্মদিবস সময় দেওয়া হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অফিস বুধবার তাদের বিরুদ্ধে এ ব্যবস্থা নেয়।

এদিকে নিজস্ব প্রতিবেদক, বগুড়া থেকে জানান, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে রাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য করায় শিবগঞ্জে এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ। বিহার ইউনিয়নের ওই যুবকের নাম আরিজুর রহমান জাহিদ (২২)।

বগুড়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সনাতন চক্রবর্তী জানান, রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রীসহ গণ্যমান্য ব্যক্তিদের নিয়ে কুরুচিপূর্ণ বিভিন্ন স্ট্যাটাস দিয়েছেন জাহিদ। নিরাপদ সড়ক আন্দোলনে গুজব রটানোর অভিযোগও রয়েছে তাঁর বিরুদ্ধে। মোবাইল ফোন পরীক্ষায় অভিযোগের প্রাথমিক সত্যতা পাওয়া গেছে।

 

মন্তব্য