kalerkantho

রবিবার । ২৬ মে ২০১৯। ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ২০ রমজান ১৪৪০

টানা পার্টির এক ছিনতাইকারীর কাছে মিলল ৬০ ভ্যানিটি ব্যাগ

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৩ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



রাজধানীর মিরপুরের বিআরটিএ কার্যালয়ের সামনে এক রিকশাযাত্রীর ব্যাগ টেনে নিতে গিয়ে পথচারীদের হাতে ধরা পড়ে এক ছিনতাইকারী। গত সোমবার সন্ধ্যায় মোটরসাইকেল আরোহী ওই ছিনতাইকারীকে গণধোলাইয়ের পর পুলিশে সোপর্দ করা হয়। টানা পার্টির সদস্য ফয়সাল রহমান সোহেল (৩০) নামের ওই যুবককে জিজ্ঞাসাবাদের পর গতকাল মঙ্গলবার উত্তর কাফরুলে তার বাসায় পুলিশ অভিযান চালিয়ে ৬০টি ভ্যানিটি ব্যাগ ও পার্স উদ্ধার করে। সেসব ব্যাগে স্বর্ণালংকার, চাবি, টাকা, অনেকের জাতীয় পরিচয়পত্র, ব্যাংকের কার্ড এবং ৫০-৬০টি সিম পাওয়া যায়।

সংশ্লিষ্ট পুলিশ কর্মকর্তারা জানান, সোহেল রাস্তায় মোটরসাইকেল নিয়ে ঘুরত আর সুযোগ বুঝে রিকশারোহী নারীদের ব্যাগ টান দিয়ে নিয়ে যেত। তার বিরুদ্ধে গতকাল কাফরুল থানায় মামলা করেছে পুলিশ। আজ বুধবার তাকে আদালতে হাজির করা হবে।

সমপ্রতি রাজধানী ঢাকায় টানা পার্টির অপতৎপরতা বেড়েছে। গত ১৮ ডিসেম্বর যাত্রাবাড়ীর দয়াগঞ্জে রিকশারোহী এক নারীর ব্যাগ টান দিয়ে নিয়ে যাওয়ার সময় আরাফাত নামে ছয় মাসের এক শিশু রাস্তায় ছিটকে পড়ে মারা যায়। এ ঘটনায় তোলপাড় শুরু হলে ছিনতাইকারী ও টানা পার্টির সদস্যদের ধরতে বিশেষ অভিযানে নামে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। টানা অভিযানে অন্তত দেড় শতাধিক ছিনতাইকারী ও টানা পার্টির সদস্যকে গ্রেপ্তার করে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। ২৬ ডিসেম্বর এক রাতেই গ্রেপ্তার করা হয় ৫৬ জনকে। তবে থামছে না ছিনতাইকারীদের দৌরাত্ম্য।

কাফরুল থানার এসআই ওয়াহিদুল হাসান সুমন জানান, তাঁরা টানা পার্টির সদস্য সোহেলকে আটক করার পর থানায় নিয়ে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করেন। প্রথম দিকে সোহেল ছিনতাইয়ের সঙ্গে জড়িত থাকার কথা স্বীকারই করছিল না। এ সময় তার ব্যাগের ভেতরে একটি স্কুলের ভর্তির কাগজপত্র পাওয়া যায়। ওই কাগজপত্রে থাকা ঠিকানায় গিয়ে পুলিশ জানতে পারে, কয়েক দিন আগে এই কাগজসহ ব্যাগটি টানা পার্টির এক সদস্য ছিনিয়ে নিয়ে যায়।

মন্তব্য