kalerkantho

শুক্রবার । ২৪ মে ২০১৯। ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ১৮ রমজান ১৪৪০

পদ্মা সেতুর কনস্ট্রাকশন ট্রায়াল পাইল বসানো শুরু

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি   

২২ আগস্ট, ২০১৫ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পদ্মা সেতুর কনস্ট্রাকশন ট্রায়াল পাইল স্থাপনের কাজ শুরু হয়েছে। গতকাল শুক্রবার সকাল সাড়ে ৮টা থেকে দেশি-বিদেশি প্রকৌশলীরা কাজ শুরু করেন। এই ট্রায়াল পাইলটি স্থাপনে তিন হাজার টন ওজন ক্ষমতার জার্মানির হ্যামার ইনস্টল করা হয়েছে। আজ শনিবার থেকে এটি ড্রাইভ করে ১২০ মিটার দীর্ঘ ও তিন মিটার ব্যাসের বিশাল হ্যামারটি পুরোদমে কাজ শুরু হবে বলে জানা গেছে।
মাওয়া সাইডের নদীর ৭ নম্বর পিলারে এটি বসছে। এর আগে টেস্ট পাইল স্থাপন কাজ শুরু হলেও কনস্ট্রাকশন ট্রায়াল পাইল স্থাপন এই প্রথম। পদ্মা সেতুতে মোট দুটি কনস্ট্রাকশন ট্রায়াল পাইল স্থাপন করা হবে। আর টেস্ট পাইল স্থাপন হবে মোট ১০টি। এরই মধ্যে তিনটি টেস্ট পাইল স্থাপন হয়ে গেছে।
এ বিষয়ে পদ্মা সেতুর নির্বাহী প্রকৌশলী (মূল সেতু) দেওয়ান আব্দুল কাদের বলেন, ‘এটি স্থাপনের সময় লাগবে ১৫ দিন। এই কনস্ট্রাকশন ট্রায়াল পাইল স্থাপনের মধ্য দিয়ে পদ্মা সেতুর কাজ আরেক ধাপ এগিয়ে গেল। ইতিমধ্যেই মূল সেতুর ১৩ দশমিক ৫৫ শতাংশ কাজ সম্পন্ন হয়েছে। সবমিলিয়ে পদ্মা সেতুর কাজ সম্পন্ন হয়েছে প্রায় ২০ শতাংশ।
প্রকল্প এলাকায় এখন চলছে বিশাল কর্মযজ্ঞ। কনস্ট্রাকশন ইয়ার্ডে নদী ভাঙন দেখা দিলেও তা প্রতিরোধ করা হয়েছে। নদী শাসন, দুই পারের অ্যাপ্রোচ সবই চলছে এখন পুরোদমে। তবে সরেজমিন ঘুরে দেখা দেখা গেছে, নদী শাসনের ড্রেজিং করা বিপুলপরিমাণ বালু ফেলার স্থান নির্ধারণ নিয়ে রয়েছে কিছুটা সমস্যা।
সংশ্লিষ্ট একটি সূত্র জানায়, পদ্মা সেতুকে কেন্দ্র করে হংকং ও সিঙ্গাপুরের মতো যে শহর গড়ে তোলা বা পদ্মার চরে অলিম্পিক ভিলেজসহ নানা উন্নয়ন পরিকল্পনা রয়েছে সরকারের। সেখানে এই বালু ব্যবহার করলে বিপুল অর্থের সাশ্রয় ছাড়াও ড্রেজিংয়ের এই বালু রাখার সংকটের সমাধান হতে পারে। এ ব্যাপারে শীর্ষ পর্যায়ের ত্বরিত সিদ্ধান্ত প্রয়োজন বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা।

মন্তব্য