kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৯ নভেম্বর ২০২২ । ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ ।  ৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

অনলাইনে অর্থপাচার প্রতিরোধে প্রয়োজন শক্তিশালী সাইবার পুলিশিং

অনলাইন ডেস্ক   

২ অক্টোবর, ২০২২ ২২:২৭ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



অনলাইনে অর্থপাচার প্রতিরোধে প্রয়োজন শক্তিশালী সাইবার পুলিশিং

সেমিনারে প্রধান অতিথি ছিলেন পুলিশের মহাপরিদর্শক চৌধুরী আব্দুল্লাহ আল-মামুন। ছবি- কালের কণ্ঠ।

বর্তমান সময়ে সবচেয়ে আলোচিত অপরাধ অনলাইন জুয়া এবং অর্থপাচার প্রতিরোধে পুলিশের সাইবার পেট্টোলিং, সাইবার ফরেনসিকসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে সক্ষমতা ও দক্ষতা বাড়াতে হবে।  প্রয়োজন সামাজিক সচেতনতা। ডিজিটাল ডিভাইস ব্যবহার করে অনলাইন জুয়া ও হুন্ডির মাধ্যমে হাজার কোটি টাকা পাচার হয়ে যাচ্ছে। তাই এখন শক্তিশালী সাইবার পুলিশিং প্রয়োজন।

বিজ্ঞাপন

অনলাইন জুয়া ও অর্থ পাচার প্রতিরোধে কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহণে করনীয় নির্ধারণে আজ রবিবার পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগে (সিআইডি) আয়োজিত এক সেমিনারে বক্তারা এসব কথা বলেন। ‘অনলাইন জুয়া ও অর্থপাচার: চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা’ শিরোনামের এই সেমিনারে প্রধান অতিথি ছিলেন পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি)  চৌধুরী আব্দুল্লাহ আল-মামুন। গত শুক্রবার দায়িত্ব গ্রহণের পর এটিই তার প্রথম সেমিনারে অংশগ্রহণ।

পুলিশ প্রধান চৌধুরী আব্দুল্লাহ আল-মামুন সেমিনারের উদ্বোধন ঘোষণা করে বলেন, 'অনলাইন জুয়া ও মানি লন্ডারিং সংক্রান্ত অপরাধ প্রতিরোধে সাইবার স্পেসে নজরদারি বাড়াতে হবে। ' এ সময় তিনি কার্যকরী ভূমিকা পালনের জন্য সবাইকে কিছু গুরুত্বপূর্ণ দিক-নির্দেশনামূলক দেন।  

সেমিনারের সভাপতি সিআইডি প্রধান মোহাম্মদ আলী মিয়া বলেন, 'অনলাইন জুয়া এবং মানি লন্ডারিংয়ের মাধ্যমে অর্থপাচার রোধে সিআইডি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। এ ধরনের অপরাধের বিরুদ্ধে অভিযান অব্যাহত আছে। '

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে পুলিশের বিশেষ শাখা (এসবি) প্রধান অতিরিক্ত আইজিপি মো. মনিরুল ইসলাম  বলেন, 'বর্তমানে আমরা ডিজিটাল বাংলাদেশের সুবিধা ভোগ করছি। কিন্তু কিছু অসাধু ব্যক্তি এই ডিজিটাল প্লাটফর্ম ব্যবহার করে নানা ধরণের অপরাধ করছে। এই অপরাধগুলো কঠোরভাবে দমন করা হবে। ’

সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন অ্যাসোসিয়েট প্রফেসর ও গবেষক ড. খান সরফরাজ আলী। বক্তব্য রাখেন দুদকের প্রধান আইনজীবী খুরশিদ আলম খান, সাইবার পুলিশ সেন্টারের বিশেষ পুলিশ সুপার রেজাউল মাসুদ প্রমুখ।  

বক্তারা বলেন, সাইবার স্পেসে অপরাধীরা নতুন ধরনের অপরাধ করছে। ভার্চুয়াল মাধ্যমে অবৈধভাবে অর্থের লেনদেন হচ্ছে। দেশ থেকে টাকাও পাচার হয়ে যাচ্ছে। এ ক্ষেত্রে অনলাইন জুয়া ও হুন্ডির মাধ্যমে বেশি অর্থপাচার হচ্ছে। এ ধরনের অপরাধ ধরতে হলে পুলিশের সাইবার ইউনিটকে আরো শক্তিশালী করতে হবে।

তারা আরো বলেন, সাইবার অপরাধীদের শনাক্ত, ডিজিটাল সাক্ষ্য সংগ্রহ, মামলার তদন্ত পরিচালনা, পারিবারিক এবং সামাজিক সচেতনতাসহ বেশ কিছু চ্যালেঞ্জ এখনো আছে।

বক্তারা আরো বলেন, সাম্প্রতিক সময়ে নজরদারির মাধ্যমে অনলাইন জুয়া, অনলাইন গেমের মাধ্যমে অর্থপাচার, মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে অর্থপাচারসহ বেশ কিছু চক্র ধরেছে সিআইডি। প্রতিটি অভিযানে নতুন ধরনের তথ্য পাওয়া যাচ্ছে। নজরদারি ও অভিযান আরো বাড়ানো হয়েছে।



সাতদিনের সেরা