kalerkantho

শুক্রবার । ২ ডিসেম্বর ২০২২ । ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ ।  ৭ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

বিএনপিকে আর সুযোগ দেওয়া যাবে না : নানক

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ২০:১২ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



বিএনপিকে আর সুযোগ দেওয়া যাবে না : নানক

আহত নেতাকর্মীদের দেখতে গিয়ে সাংবাদিকদের সাথে কথা বলেন জাহাঙ্গীর কবির নানক। ছবি- কালের কণ্ঠ।

বিএনপির নেতাদের হুশিয়ারী দিয়ে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেছেন, তারা কোনো কর্মসূচি শান্তিপূর্ণ করে না। জনগণের জান-মালের নিরাপত্তার স্বার্থে তাদেরকে আর সুযোগ দেওয়া যাবে না। দলগতভাবে আমরা তাদেরকে প্রতিহত করব।

আজ সন্ধ্যায় হাজারীবাগে বিএনপির হামলায় আহত দলীয় নেতাকর্মীদের দেখতে রাজধানীর সিকদার মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে যান আওয়ামী লীগের প্রতিনিধি দল।

বিজ্ঞাপন

সেখানে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে বিএনপির নেতাদের উদ্দেশ্যে এমন হুশিয়ারী দেন নানক। এসময় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম, ঢাকা মহানগর উত্তরের সভাপতি শেখ বজলুর রহমান, প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় হামলাকারীদের চিহ্নিত করতে ২৪ ঘন্টার আল্টিমেটাম দিয়ে নানক বলেন, আমি পরিস্কার করে বলতে চাই- যারা এই ঘটনায় জড়িত রয়েছে, আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যে তাদেরকে চিহ্নিত করে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারীর আওতায় আনতে হবে। ওদের বিরুদ্ধে সতর্ক থাকতে হবে।

আওয়ামী লীগ আর বসে থাকবে না জানিয়ে জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেন, বিএনপি অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে মিছিল সমাবেশ করছে। তাই ওদের আর সময় দেওয়ার সুযোগ নেই। হাজারীবাগে তারা আন্দোলনের নামে আওয়ামী লীগের নেতা শাহ আলমকে র্নিমমভাবে অত্যাচার করেছে। সাংবাদিক ও মহিলারাও রক্ষা পায়নি বিএনপির সন্ত্রাসীদের হাত থেকে। ওদেরকে সুযোগ দেওয়া হয়েছিল কিন্তু ওরা মিছিলের নামে জনগণের উপরে অতর্কিত হামলা চালায়। ওদেরকে প্রতিহত করার এখনই সময়।

আওয়ামী লীগের নীতিনির্ধারণী ফোরামে এই নেতা বলেন, বিএনপিকে বিশ্বাস করা যায় না। তারা আগেও আগুন-সন্ত্রাস করেছে। মানুষ পুড়িয়ে মেরেছে। জান-মাল ধ্বংস করেছে। বিএনপি আবার আগুন-সন্ত্রাস করতে মাঠে নেমেছে। ওরা গণতন্ত্র বিশ্বাস করতে চায় না। ওরা গণতন্ত্র জানে না। তাই ওদের বিরুদ্ধে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।

এ সময় আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম বলেন, কেউ বিএনপির সন্ত্রাসীর কর্মকাণ্ড হাতে হাত থেকে রক্ষা পাচ্ছে না। আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী, সাংবাদিক এবং সাধারণ মানুষদের উপর অত্যাচার করেছে। এরা হত্যাকারী দল। দেশে শান্তির লক্ষ্যে এই সন্ত্রাসী দলকে অবশ্যই আমরা মোকাবেলা করব।

প্রসঙ্গত, সাম্প্রতি হাজারীবাগে বিএনপি-আওয়ামী লীগের সংঘর্ষে গুরুতর আহত হন আওয়ামী লীগ নেতা শাহ আলাম, আইরীনসহ কয়েকজন। এরমধ্যে শাহ আলমের অবস্থা আশঙ্কাজনক । তাই তাকে বঙ্গবন্ধু মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের আইসিইউতে হস্তান্তর করা হয়েছে।



সাতদিনের সেরা