kalerkantho

শুক্রবার । ২ ডিসেম্বর ২০২২ । ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ ।  ৭ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

রাজনীতি নয়, খুন-ধর্ষণ ও পতিতাবৃত্তিতে ব্যস্ত ছাত্রলীগ : কর্নেল অলি

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ১৭:৪৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



রাজনীতি নয়, খুন-ধর্ষণ ও পতিতাবৃত্তিতে ব্যস্ত ছাত্রলীগ : কর্নেল অলি

ছবি- এলডিপির প্রেসিডেন্ট ডক্টর কর্নেল (অব.) অলি আহমদ বীর বিক্রম।

২০ দলীয় জোটের অন্যতম শীর্ষনেতা ও লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি- এলডিপির প্রেসিডেন্ট ডক্টর কর্নেল (অব.) অলি আহমদ বীর বিক্রম বলেছেন, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ আজ সন্ত্রাসীদের সংগঠনে পরিণত হয়েছে। ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা এখন সুক্ষ্ম ধারার রাজনীতির চর্চা বাদ দিয়ে খুন, ধর্ষণ, লুটপাট, অগ্নিসংযোগ, পতিতাবৃত্তি, অস্ত্রব্যবসা, মাদকব্যবসা, সিট ও ভর্তি বাণিজ্যে ব্যস্ত রয়েছে। ছাত্রলীগের নেত্রীদের বিরুদ্ধে ইডেন কলেজের ছাত্রীদের দিয়ে জোরপূর্বক পতিতাবৃত্তি করানোর অভিযোগ উঠেছে।

আজ বৃহস্পতিবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে কর্নেল অলি এসব বলেন।

বিজ্ঞাপন

বিবৃতিতে তিনি বলেন, 'ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রদলের ওপর ছাত্রলীগের হামলা ক্যাম্পাসে শিক্ষার্থীদের জন্য এক ভীতিকর ও অনিরাপদ পরিবেশ সৃষ্টি করেছে। আর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ছাত্রলীগের এই সন্ত্রাসী এবং দখলদারিত্বের ভূমিকাকে প্রকাশ্যে সমর্থন দিয়ে চলেছেন। '

তিনি আরো বলেন, 'আওয়ামী লীগ রাষ্ট্রক্ষমতা দখল করার পর থেকে লাগামহীন অপরাধ কর্মকাণ্ডে নামে ছাত্রলীগ। ক্যম্পাসে খুনোখুনি, লাগাতার অভ্যন্তরীন তাণ্ডব, সাধারণ শিক্ষার্থীদের নির্যাতন, বেপরোয়া যৌন সন্ত্রাসের অভিযোগ সত্বেও একটি ঘটনারও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির নজির নেই। এতে দিন দিন সংগঠনটিতে অপরাধ প্রবণতা প্রবলতর হচ্ছে। ' 

তিনি বলেন, 'দেশে এমন কোনো অপরাধ নেই, যার সঙ্গে ছাত্রলীগ যুক্ত নেই। বিরোধীদলকে দমন-পীড়নে এই সন্ত্রাসী সংগঠনটিকে ব্যবহার করছে আওয়ামী লীগ। গণতান্ত্রিক রাজনৈতিক পরিবেশ বিনষ্ট করছে তারা। '

কর্নেল অলি বলেন, 'ছাত্রলীগ বিরোধীদলের সভা-সমাবেশে হামলা চালিয়ে রাজনৈতিক পরিবেশকে উত্তপ্ত করে তুলছে। এতে অনিবার্যভাবে এক সংঘাতময় পরিস্থিতির সৃষ্টি ও জননিরাপত্তা হুমকির মুখে পড়েছে। এমতাবস্থায়, ছাত্রলীগের সন্ত্রাসী ও অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডে লাগাম টেনে ধরা জরুরি। সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে ছাত্রলীগকে নিষিদ্ধ করা এখন সময়ের দাবি। '



সাতদিনের সেরা