kalerkantho

মঙ্গলবার । ৬ ডিসেম্বর ২০২২ । ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ । ১১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

বিটিআরসির নির্দেশিকা

কল ড্রপে ৩ গুণ ক্ষতিপূরণ

♦ কল করার ১০ সেকেন্ডের মধ্যে ড্রপ হলে ৩০ সেকেন্ড টকটাইম ফেরত ♦ ১ অক্টোবর থেকে গ্রাহক আগের দিন, সপ্তাহ ও মাসের কল ড্রপের সংখ্যা জানতে পারবেন ♦ মোবাইল অপারেটররা তাদের নেটওয়ার্কের মান উন্নত করলে এবং এ ক্ষেত্রে তাদের বিনিয়োগ বাড়ালে কল ড্রপের ক্ষতিপূরণ কমিয়ে আনতে পারবে -মোস্তাফা জব্বার, ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী

বিশেষ প্রতিনিধি    

২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ০৯:০৬ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



কল ড্রপে ৩ গুণ ক্ষতিপূরণ

মোবাইল ফোনের গ্রাহকরা কল ড্রপের তিন গুণ ক্ষতিপূরণ পাবেন। তা পাওযা যাবে অননেটে বা একই অপারেটরের ক্ষেত্রে। কল করার ১০ সেকেন্ডের মধ্যে কল ড্রপ হলে গ্রাহক ৩০ সেকেন্ড টকটাইম ফেরত পাবেন। ১ অক্টোবর থেকে এই নিয়ম চালু হবে।

বিজ্ঞাপন

গতকাল সোমবার বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি) আয়োজিত মোবাইল ফোনে যোগাযোগের ক্ষেত্রে সংঘটিত কল ড্রপ এবং সংশ্লিষ্ট ক্ষতিপূরণ শীর্ষক এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানানো হয়। এ ব্যাপারে বিটিআরসি নতুন নির্দেশিকা প্রকাশ করে।

বিটিআরসির সম্মেলনকক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে মোবাইল ফোনের কল ড্রপের বর্তমান পরিস্থিতি তুলে ধরা হয়।

এতে বলা হয়, ফেরত টকটাইম ব্যবহারের আগে গ্রাহকের অ্যাকাউন্ট থেকে আর কোনো টাকা কেটে নেওয়া যাবে না। টকটাইম ফেরত দেওয়ার পর সংশ্লিষ্ট অপারেটর গ্রাহককে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে তা জানিয়ে দেবে। গ্রাহক ওই টকটাইম ব্যবহারের সময় পাবেন ১৫ দিন।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, মে মাসের ৩১ দিনে গ্রামীণফোন, রবি ও বাংলালিংকের মোট অননেট কল ড্রপ হয়েছে সাত কোটি ৯৯ লাখ ৬৬ হাজার ৩৩২টি। গ্রামীণফোনের কল ড্রপ হয়েছে তিন কোটি ৯৬ লাখ ৬২ হাজার ৮৪৫টি, রবির হয়েছে তিন কোটি ৩১ লাখ ৪৮ হাজার ১৫৬টি এবং বাংলালিংকের ৭১ লাখ ৫৫ হাজার ৩৩১টি।

সংবাদ সম্মেলনে বিটিআরসির চেয়ারম্যান শ্যামসুন্দর সিকদার, ভাইস চেয়ারম্যান সুব্রত রায় মৈত্র, মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. নাসিম পারভেজ বক্তব্য দেন। ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার ও সচিব খলিলুর রহমান এতে ভার্চুয়ালি যুক্ত ছিলেন।

মন্ত্রী বলেন, মোবাইল অপারেটররা তাদের নেটওয়ার্কের মান উন্নত করলে এবং এ ক্ষেত্রে তাদের বিনিয়োগ বাড়ালে কল ড্রপের ক্ষতিপূরণ কমিয়ে আনতে পারবে।

বিটিআরসি জানায়, ১ অক্টোবর থেকে গ্রাহক আগের দিন, সপ্তাহ ও মাসের কল ড্রপের সংখ্যা জানতে পারবেন। *১২১*৭৬৫# নম্বরে ডায়াল করে এ তথ্য জানা যাবে। ক্ষতিপূরণ হিসেবে প্রথম ও দ্বিতীয় কল ড্রপের ক্ষেত্রে তিনটি পালস (৩০ সেকেন্ড) ও পরবর্তী তৃতীয় থেকে সপ্তম কল ড্রপের ক্ষেত্রে আর্থিক ও মানসিক ক্ষতির বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে চারটি পালস গ্রাহককে ফেরত দেওয়া হবে।

বিটিআরসির চেয়ারম্যান শ্যামসুন্দর শিকদার বলেন, ‘তরঙ্গ বরাদ্দ দিয়েছি। টাওয়ার শেয়ারিং নিয়ে কাজ করছি। এখন একটি মোবাইল ফোন অপারেটরের টাওয়ার অন্য অপারেটর শেয়ার করতে পারবে। কল ড্রপ ৫ শতাংশের নিচেও সহ্য করতে চাই না। শূন্যে নামিয়ে আনার চেষ্টা করা হবে। ’

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, জবাবদিহি ও গ্রাহক সন্তুষ্টি নিশ্চিত করতে সব মোবাইল অপারেটর অভিন্ন ইউএসএসডি কোড (*১২১*৭৬৫#) ব্যবহার করে গ্রাহককে কল ড্রপের সংখ্যা জানাবে। একজন গ্রাহক তাঁর কল কী পরিমাণ ড্রপ হয়েছে, এত দিন তা জানতে পারতেন না। এখন নির্দিষ্ট কোডে ডায়াল করে তা জানা যাবে।



সাতদিনের সেরা