kalerkantho

বুধবার । ৭ ডিসেম্বর ২০২২ । ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ । ১২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

নতুন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে পাঠদানের বিষয়ে নীতিমালা করছে ইউজিসি

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ১৬:৫৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নতুন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে পাঠদানের বিষয়ে নীতিমালা করছে ইউজিসি

ছবি- ইউজিসির ভার্চুয়াল বৈঠক।

বিশ্ববিদ্যালয়ের অনুমোদন পাওয়ার পর একটি প্রতিষ্ঠান কোন পর্যায়ে উপনীত হলে তারা পাঠদান কার্যক্রম শুরু করতে পারবে এ বিষয়ে নীতিমালা তৈরির কাজ চলছে বলে জানান বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) সদস্য অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ আলমগীর। তিনি বলেন, 'তিন থেকে ৪ মাসের মধ্যে নীতিমালা তৈরি করা হবে। পরে শিক্ষাবিদসহ সংশ্লিষ্টদের মতামত নিয়ে তা চূড়ান্ত করা হবে। '

আজ সোমবার ইউজিসির ভার্চুয়াল বৈঠকে নীতিমালা প্রণয়ন কমিটির প্রথম সভায় এ বিষয়ে আলোচনা করা হয়।

বিজ্ঞাপন

কমিটির আহ্বায়ক ড. মুহাম্মদ আলমগীর জানান, আগে নতুন বিশ্ববিদ্যালয়ের অনুমোদন হলে প্রকল্প পরিচালক নিয়োগ হতো, তারা একটা কাঠামো তৈরি করত, তারপর উপাচার্য নিয়োগের পর পাঠদান কাজ শুরু হতো। এ বিষয়ে কোনো নীতিমালা না থাকায় বর্তমানে অনেকেই সেই ধারাবাহিকতা থেকে সরে গিয়েছে। একাডেমিক প্ল্যান, সিলেবাস ও স্থাপনা না রেখেই পাঠদান শুরু করছেন। '

এতে শিক্ষার্থীদের মানসিক বিকাশ বাধাগ্রস্ত হওয়ার পাশাপাশি শিক্ষা কার্যক্রমেও ব্যাঘাত ঘটছে, শিক্ষার মান ঠিক রাখা যাচ্ছে না উল্লেখ করে তিনি বলেন, 'গুণগত উচ্চশিক্ষা ও গবেষণার পরিবেশ নিশ্চিত করতে, মানসম্পন্ন গ্রাজুয়েট তৈরি এবং বৈশ্বিক বাজার উপযোগী করতে এই নীতিমালা গঠন করা হচ্ছে। '

নীতিমালা গঠনে পাঁচ সদস্যের কমিটিতে অন্যান্য সদস্যরা হলেন- বাংলাদেশ অ্যাক্রোডিটেশন কাউন্সিলের সদস্য অধ্যাপক ড. সঞ্জয় কুমার অধিকারী, বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ উপাচার্য অধ্যাপক ড. মাহবুবা নাসরীন, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞান প্রকৌশল ও প্রযুক্তি স্কুলের ডিন অধ্যাপক ড. আফরোজা পারভীন এবং ইউজিসির ম্যানেজমেন্ট বিভাগের উপ পরিচালক মৌলি আজাদ।



সাতদিনের সেরা