kalerkantho

রবিবার । ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ । ১০ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ২৮ সফর ১৪৪৪

কর্মঘণ্টা কমিয়ে উচ্চ ও অধস্তন আদালতের নতুন সময়সূচি

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৩ আগস্ট, ২০২২ ২০:৩৯ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



কর্মঘণ্টা কমিয়ে উচ্চ ও অধস্তন আদালতের নতুন সময়সূচি

জ্বালানি সংকটের মধ্যে বিদ্যুৎ সাশ্রয়ের চেষ্টায় সরকারি ও স্বায়ত্তশাসিত অফিসের কর্মঘণ্টা কমিয়ে সরকার সময়সূচি বদলে দেওয়ার পর উচ্চ ও অধস্তন আদালতের সময়সূচিতে পরিবর্তন আনা হয়েছে।

সুপ্রিম কোর্টের ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার জেনারেল মো. গোলাম রাব্বানী মঙ্গলবার এসংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তি জারি করেন। নতুন সময়সূচি অনুযায়ী উচ্চ ও অধস্তন আদালতের বিচারকাজের কর্মঘণ্টা আধাঘণ্টা কমেছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, আগামী বৃহস্পতিবার থেকে পরবর্তী নির্দেশনা না আসা পর্যেন্ত এ সময়সূচিতে চলবে উচ্চ ও নিম্ন আদালতের বিচারকাজ।

বিজ্ঞাপন

 

বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী বৃহস্পতিবার থেকে হাইকোর্টের বিচারকাজ শুরু হবে সকাল সাড়ে ৯টা থেকে। দুপুরে নামাজের জন্য ৪৫ মিনিট বিরতি দিয়ে চলবে বেলা পৌনে ৩টা পর্যন্ত। একইভাবে দুপুরে ৪৫ মিনিট বিরতি রেখে হাইকোর্টের অফিসের সময়সূচি করা হয়েছে ৮টা থেকে বেলা ৩টা পর্যন্ত।

নতুন সময়সূচিতে বৃহস্পতিবার থেকে অধস্তন আদালতে বিচারকাজ শুরু হবে সকাল সাড়ে ৮টায়। দুপুরে ৪৫ মিনিট নামাজের বিরতির পর চলবে বেলা আড়াইটা পর্যন্ত। একইভাবে অধস্তন আদালতের অফিসের সময়সূচিতেও পরিবর্তন আনা হয়েছে। দুপুরে ৪৫ মিনিট বিরতি নিয়ে সকাল ৮টা থেকে বেলা ৩টা পর্যন্ত চলবে অধস্তন আদালতের অফিসের কাজ।

চলতি সময়সূচি অনুযায়ী সকাল সাড়ে ১০টা থেকে বিকাল সোয়া ৪টা পর্যন্ত চলছিল হাইকোর্টের বিচারকাজ। এর মাঝে দুপুরে নামাজের জন্য ৪৫ মিনিট বিরতি থাকত। আর অধস্তন আদালতের বিচারকাজ চলত সকাল ১০টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত। দুপুরে বিরতি থাকত ৪৫ মিনিট। তবে সর্বোচ্চ আদালত অর্থাৎ আপিল বিভাগের বিচারকাজের সময়সূচিতে পরিবর্তন না আনলেও অফিসের সময়সূচি পরিবর্তন করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার থেকে আপিল বিভাগের অফিস চলবে সকাল ৮টা থেকে বেলা ৩টা পর্যন্ত। এত দিন যা চলে আসছিল ৯টা থেকে ৫টা পর্যন্ত।

রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ জ্বালানির আন্তর্জাতিক বাজারে যে অস্থিরতা তৈরি করেছে, তার প্রভাব পড়েছে বাংলাদেশের বিদ্যুৎ উৎপাদনে। ফলে সম্প্রতি দেশজুড়ে লোড শেডিং ফিরে এসেছে। জ্বালানি তেলের দাম এক লাফে বাড়ানো হয়েছে ৫০ শতাংশ পর্যন্ত।

এই পরিস্থিতি লকডাউনের সময়ের মতো হোম অফিস চালু করা, অফিসের কর্মঘণ্টা কমিয়ে আনা, এসি ব্যবহারে সংযমী হওয়াসহ বেশ কিছু পদক্ষেপ নিতে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের কাছে সুপারিশ করেছিল বিদ্যুৎ ও জ্বালানি মন্ত্রণালয়। এসব সুপারিশ পর্যালোচনা করে গতকাল সোমবার কর্মঘণ্টা কমিয়ে অফিস ও ব্যাংকের সময়সূচি বদলে দেয় সরকার। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে মন্ত্রিসভার বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়। পরে নতুন সময়সূচি উল্লেখ করে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় প্রজ্ঞাপন জারি করে।

আগামীকাল বুধবার থেকে সরকারি ও স্বায়ত্তশাসিত অফিস চলবে সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৩টা পর্যন্ত, যা ৯টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত চলে আসছিল। আর ব্যাংকের কাজ চলবে সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত। এত দিন ব্যাংকের দাপ্তরিক কাজের সময় ছিল সকাল ১০টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত।



সাতদিনের সেরা