kalerkantho

মঙ্গলবার । ৪ অক্টোবর ২০২২ । ১৯ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

চা-শ্রমিকদের ন্যায্য দাবি মেনে নেওয়ার আহ্বান বাসদের

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৭ আগস্ট, ২০২২ ১৪:৫৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



চা-শ্রমিকদের ন্যায্য দাবি মেনে নেওয়ার আহ্বান বাসদের

দেশের ২৪১টি চা-বাগানের শ্রমিকদের আন্দোলনের প্রতি সংহতি জানিয়ে তাদের মজুরি বৃদ্ধিসহ ন্যায্য দাবি মেনে নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল (বাসদ)। আজ বুধবার (১৭ আগস্ট) দলের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক কমরেড বজলুর রশীদ ফিরোজ  গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে চা বাগানের মালিক, সরকার ও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের প্রতি এই আহ্বান জানান।  

বিবৃতিতে তিনি বলেন, দেশের সব থেকে অবহেলিত ও প্রান্তিক জনগোষ্ঠী হলো চা-শ্রমিকরা। দেশের অন্য যেকোনো খাতের তুলনায় চা-শ্রমিকদের মজুরি সর্বনিম্ন।

বিজ্ঞাপন

দিনে তাদের মজুরি মাত্র ১২০ টাকা। এত কম মজুরি দেশের আর কোনো শ্রমিকের নেই। তাদের না আছে ভালো থাকার জায়গা, না আছে সুপেয় পানি, চিকিৎসা ও সন্তানের লেখাপড়ার ব্যবস্থা।  

বিবৃতিতে বলা হয়, নিয়ম অনুযায়ী দুই বছর পর পর মজুরি পুনর্নির্ধারণ হওয়ার কথা। কিন্তু শ্রমিক ইউনিয়ন ও মালিকদের যোগসাজশে প্রতিবারই নির্ধারণপ্রক্রিয়া ঝুলিয়ে রেখে শ্রমিকদের ঠকানো হয়। এবারও মজুরি নির্ধারণের সময় প্রায় ২০ মাস অতিবাহিত হলেও মজুরি বোর্ডের কোনো তৎপরতা না থাকায় শ্রমিকরা প্রথমে দিনে ২ ঘণ্টা করে কর্মবিরতি পালন করে। এতেও মালিক-সরকারের টনক না নড়ায় গত ১৩ আগস্ট থেকে দেশের ২৪১টি বাগানে পূর্ণ কর্মবিরতি পালন করছেন চা-শ্রমিকরা। ইতিমধ্যে চা-শ্রমিকদের আন্দোলন পুলিশ দিয়ে দমনের চেষ্টা করা হয়েছে।

বিবৃতিতে চা-শ্রমিকদের ন্যায়সঙ্গত আন্দোলনে পুলিশি বাধা ও হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়ে বাসদ সাধারণ সম্পাদক বলেন, অবিলম্বে চা-শ্রমিকদের মজুরি বৃদ্ধির দাবিসহ ন্যায়সঙ্গত সব দাবি মেনে নেওয়ার আহ্বান জানাচ্ছি। একই সঙ্গে সব বাম প্রগতিশীল দেশপ্রেমিক জনগণকে চা-শ্রমিকদের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানাই।



সাতদিনের সেরা