kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ । ১২ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ৩০ সফর ১৪৪৪

নানক বললেন ‘বিএনপির লজ্জা নেই’

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৩ আগস্ট, ২০২২ ২১:৫৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নানক বললেন ‘বিএনপির লজ্জা নেই’

বিএনপি সরকারের শাসনামলে বিদ্যুৎ নিয়ে সৃষ্ট জনঅসন্তোষ উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেছেন, বিদ্যুৎ নিয়ে দলটির ভবিষ্যত পরিকল্পনা লজ্জাকর। বিএনপি বিদ্যুৎ খাত ধ্বংস করে দিয়েছিলো। ৯৬ সালে শেখ হাসিনার সরকার চার হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন করেছিলেন। বিএনপি ২০০১ সালে ক্ষমতায় এসে তারেক রহমান খাম্বার ব্যবসা করেছে, বিদ্যুৎ আসেনি।

বিজ্ঞাপন

সেই বিদ্যুৎ দুই হাজার মেগাওয়াটে চলে এসেছিলো। আর শেখ হাসিনার সরকার আবার রাষ্ট্র পরিচালনা করতে এসে ১৬ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন করেছে।

শনিবার (১৩ আগস্ট) রাজধানীর গুলিস্তানে মহানগর নাট্যমঞ্চে ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগ আয়োজিত এক বর্ধিত সভায় এসব মন্তব্য করেন তিনি।

জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেন, ‘তাদের সময়ে বিদ্যুতের জন্য আন্দোলন হয়েছিলো, কানসার্টে ১৪ জন মানুষকে পাখির মতো গুলি করে হত্যা করা হয়েছিলো। সারের জন্য মিছিল করেছিলো কৃষকরা। সেই কৃষকদের ওপর গুলি চালিয়েছিলো তারা। সেই খাম্বামার্কা বিএনপি এখন বিদ্যুতের পরিকল্পনা দেয়, লজ্জাকর। ওদের লজ্জা নেই। ’

এ সময় বিদ্যুৎ নিয়ে বিএনপি সরকারে শাসনামলের জনঅসন্তোষ ও হাহাকারের কথা তুলে ধরে আওয়ামী লীগের এই নেতা বলেন, ‘পানির জন্য দৌড় সালাউদ্দিনের কথা মনে নেই? মসজিদ থেকে বলা হতো, মসজিদের বিদ্যুৎ পানি নেই, যার যার বাসা থেকে ওযু করে আসবেন। এগুলো মানুষ বুলে যায়নি। ’

তিনি বলেন, সারা বিশ্বে যখন কোভিডের সংকট চলছে তখন শেখ হাসিনার নেতৃত্ব ভালোভাবে সংকট মোকাবিলা করেছে। টিকা আসার আগেই তিনি টিকার জন্য টাকা দিয়ে বুকিং করে রেখেছিলেন, যাতে বাংলাদেশ আগেই টিকা পায়। বিনা পয়সায় সবাইকে টিকা দিয়ে কভিড নিয়ন্ত্রণ করেছেন শেখ হাসিনা। অর্থনীতি টিকিকে রাখতে বিভিন্ন প্রনোদনা দিয়েছেন বিভিন্ন খাতে।

ঢাকা মহানগর দক্ষিন আওয়ামী লীগের সহসভাপতি নুরুল আমিন রুহুলের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ, আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম প্রমুখ। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন ঢাকা মহানগর দক্ষিনের সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন কবির।



সাতদিনের সেরা