kalerkantho

রবিবার । ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ । ১০ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ২৮ সফর ১৪৪৪

বঙ্গমাতার জন্মদিনে শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রের দোয়া মাহফিল

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৮ আগস্ট, ২০২২ ১৫:১৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বঙ্গমাতার জন্মদিনে শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রের দোয়া মাহফিল

বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন নেছা মুজিবের ৯২তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র লিমিটেড কমপ্লেক্সে কোরআন খতম ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। ছবি : লুৎফর রহমান

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সহধর্মিণী ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার মা বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন নেছা মুজিবের ৯২তম জন্মবার্ষিকী আজ সোমবার (৮ আগস্ট)। এ উপলক্ষে শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র লিমিটেডের সম্মানিত চেয়ারম্যান ও বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সায়েম সোবহান আনভীরের উদ্যোগে কোরআন খতম ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়েছে।  

আজ সোমবার (৮ আগস্ট) দুপুরে বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় অবস্থিত শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র লিমিটেড কমপ্লেক্সে এই আয়োজন করা হয়। এর আগে ক্লাবের পক্ষ থেকে বঙ্গমাতার জন্মদিন উপলক্ষে পাঁচ হাজার এতিম ও দুস্থের মাঝে খাবার বিতরণ করা হয়।

বিজ্ঞাপন

বেলা ১১টায় ক্রীড়া কমপ্লেক্সে কোরআন খতম শুরু হয়। পরে বাদ জোহর দোয়া ও মোনাজাতে অংশ নেন ক্লাবের কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ অনেকে।  

এ সময় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন নেছা মুজিব, জাতির পিতার পরিবারের শহীদ সদস্যদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে বিশেষ দোয়া ও মোনাজাত করা হয়। এ ছাড়াও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দীর্ঘায়ু কামনা করে তার হাত ধরে দেশের অগ্রগতি ও সমৃদ্ধি অর্জনের জন্য দোয়া করা হয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রের ডিরেক্টর ইনচার্জ ইসমত জামিল আকন্দ, ডিরেক্টর অব ফাইন্যান্স মো. ফখরুদ্দিন, পরিচালক মাকসুদুর রহমান, হাবিবুর রহমান খান, মীর মো. শাহাবুদ্দিন টিপু, মো. আবু বকর, মো. আসাদুজ্জামান, ক্লাবের আজীবন সদস্য মো. পিজিরুল আলম খান, শেখ মোহাম্মদ মিজানুর রহমান, আমিনুল ইসলাম, মো. মারুফ কাজি, শেখ আবু সোহেল প্রমুখ।

বঙ্গমাতা ফজিলাতুন নেছা মুজিব ১৯৩০ সালের ৮ আগস্ট তৎকালীন গোপালগঞ্জ জেলার (তৎকালীন মহকুমা) টুঙ্গিপাড়া গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তার ডাকনাম ছিল রেণু। বাবার নাম শেখ জহুরুল হক, মায়ের নাম হোসনে আরা বেগম। এক ভাই ও দুই বোনের মধ্যে তিনি ছিলেন ছোট। ১৯৭৫ সালের ১৫ই আগস্ট কালরাতে তিনি জাতির পিতার হত্যাকারীদের হাতে নির্মমভাবে শাহাদাতবরণ করেন।



সাতদিনের সেরা