kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৬ আগস্ট ২০২২ । ১ ভাদ্র ১৪২৯ । ১৭ মহররম ১৪৪৪

ন্যূনতম মজুরি ২০ হাজার টাকা করার দাবি

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৫ আগস্ট, ২০২২ ২২:১৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ন্যূনতম মজুরি ২০ হাজার টাকা করার দাবি

একজন শ্রমিকের মাসিক মজুরি জাতীয়ভাবে নূন্যতম ২০ হাজার টাকা করার দাবি জানিয়ে সমাবেশ করেছে ঢাকা মহানগর সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্ট। একই সঙ্গে নিত্যপণ্যের মূল্য কমানো, শ্রমজীবীদের আর্মি রেটে রেশন দেওয়ার দাবি জানায় সংগঠনের নেতারা। আজ শুক্রবার বেলা ১১টায় জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে সমাবেশ করে এসব দাবি জানানো হয়।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, করোনাকালে শ্রমজীবীদের চাকরিচ্যুতি বেড়েছে, আয়ও কমেছে।

বিজ্ঞাপন

অথচ তাদের জীবন-যাপনে ব্যয়ও বেড়েছে অস্বাভাবিক হারে। মূল্যস্ফীতি এ যাবতকালের সর্বোচ্চ পর্যায়ে। চাল, ডাল, তেলসহ নিত্যপণ্যের দাম শ্রমজীবীসহ সাধারণ মানুষের জন্য ক্ষমতার বাইরে। নতুন করে জরুরি ওষুধের দামও বেড়েছে। কিন্তু ব্যয় বাড়লে আয় বা মজুরি বৃদ্ধির কোনো উদ্যোগ নেই।

ঢাকা মহানগর সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্টের সভাপতি রতন মিয়ার সভাপতিত্ব সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন দলটির কোষাধ্যক্ষ জুলফিকার আলী, মহানগর কমিটির সহসভাপতি আফজাল হোসেন, সাধারণ সম্পাদক খালেকুজ্জামান লিপন, সহ সম্পাদক মনির হোসেন মলিন, আইনবিষয়ক সম্পাদক হাবিবর রহমান, প্রচার সম্পাদক বাবু হাসান, অর্থ সম্পাদক নবী হোসেন ও সদস্য তানভীর নাঈম প্রমুখ।

লোড শেডিংকে নতুন সংকট উল্লেখ করে বক্তারা বলেন, নানা সংকটের সঙ্গে নতুন করে যুক্ত হয়েছে লোড শেডিং। সরকারের দুর্নীতি, অব্যবস্থাপনার ফলে শতভাগ বিদ্যুতায়িত দেশে অব্যাহতভাবে চলছে লোড শেডিং। তাই অবিলম্বে নিত্যপণ্যের বাজার নিয়ন্ত্রণে ব্যবসায়ী সিন্ডিকেট ভাঙা, সব শ্রমজীবীকে আর্মি রেটে রেশন প্রদান, জাতীয় ন্যূনতম মজুরি ২০ হাজার টাকা ঘোষণা এবং তেল-গ্যাস-বিদ্যুৎ খাতে দুর্নীতি, লুটপাট ও অপচয় বন্ধ করার জোর দাবি জানান বক্তরা।



সাতদিনের সেরা