kalerkantho

সোমবার । ১৫ আগস্ট ২০২২ । ৩১ শ্রাবণ ১৪২৯ । ১৬ মহররম ১৪৪৪

মৎস্য উৎপাদনে স্বর্ণ পদক পেল সাভানা ফার্ম প্রোডাক্টস

অনলাইন ডেস্ক   

২৪ জুলাই, ২০২২ ১৯:৫৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মৎস্য উৎপাদনে স্বর্ণ পদক পেল সাভানা ফার্ম প্রোডাক্টস

'নিরাপদ মাছে ভরবো দেশ, বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ'- এই স্লোগান নিয়ে শুরু হওয়া জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ ২০২২ এ মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে মাননীয় কৃষি মন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক মৎস্য খাতে বিশেষ অবদানের স্বীকৃতি স্বরূপ ২১ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের মাঝে জাতীয় মৎস্য পদক ২০২২ তুলে দেন। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে ভার্চুয়ালি সংযুক্ত ছিলেন।  

মৎস্য উৎপাদন (স্বাদু পানির মাছ/সিবাস/মিল্ক ফিস/অপ্রচলিত মৎস্য/মেরিকালচার) এই ক্ষেত্রে গোপালগঞ্জ সদর গোপালগঞ্জে সাভানা ফার্ম প্রোডাক্টস স্বর্ণ পদক অর্জন করে। প্রতিষ্ঠানটির প্রোপাইটার জনাব ফারহীন রিশতা বিনতে বেনজীর উক্ত পুরস্কার গ্রহণ করেন।

বিজ্ঞাপন

 

জনাব ফারহীন রিশতা বিনতে বেনজীর ২০২১ সালে তার খামারে ৫.২৬ হেক্টর জলায়তন বিশিষ্ট ১৫টি পুকুরে রুই জাতীয় মাছের মিশ্রচাষ, পাবদা ও অন্যান্য মাছের চাষ করে ১৫৪.৩৮ মে.টন মাছ উৎপাদন করেন। উল্লেখ্য, ১৩টি পুকুরে রুই জাতীয় মাছের মিশ্রচাষ এবং ২টি পুকুরে আধুনিক বটম ক্লিন রেসওয়ে পদ্ধতিতে পাবদা ও অন্যান্য মাছের চাষ করেছেন।

বিবেচ্য বছরে খামারটিতে হেক্টর প্রতি গড়ে ২৯.৩৫ মে.টন মাছ উৎপাদিত হয়। এর মধ্যে রুই জাতীয় মাছের হেক্টর প্রতি উৎপাদন ১৮.০১ মে. টন, যা দেশের মৎস্যচাষিদের জন্য অনুসরণীয়। মূল্যায়ন বছরে খামারটিতে ১৮৪.১০ লক্ষ টাকা বিনিয়োগ করে বছরান্তে ৩৪০.৬৩ লক্ষ টাকা আয় হয়। খামারটিতে মৎস্য বিষয়ে ডিগ্রিপ্রাপ্ত ১ জনসহ ২০ জন জনবলের কর্মসংস্থান সৃষ্টি হয়েছে।  

উত্তম মাছ চাষ অনুশীলন ও খামার যান্ত্রিকীকরণের মাধ্যমে মৎস্য উৎপাদন ও কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে অনন্য অবদান রাখায় সরকার খামারটিকে জাতীয় মৎস্য পদক ২০২২ এ স্বর্ণপদক ও নগদ ৫০ হাজার টাকা প্রদান করে।



সাতদিনের সেরা