kalerkantho

সোমবার । ১৫ আগস্ট ২০২২ । ৩১ শ্রাবণ ১৪২৯ । ১৬ মহররম ১৪৪৪

চতুর্দশ নিবন্ধনের ৪৮৩ প্রার্থীর নিয়োগ সুপারিশের নির্দেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৯ জুন, ২০২২ ১৭:২১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



চতুর্দশ নিবন্ধনের ৪৮৩ প্রার্থীর নিয়োগ সুপারিশের নির্দেশ

চতুর্দশ নিবন্ধন পরীক্ষায় উত্তীর্ণ ৪৮৩ প্রার্থীর নিয়োগ সুপারিশ করতে বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষকে (এনটিআরসিএ) নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। এসব প্রার্থীর তিনটি রিটে জারি করা রুল যথাযথ ঘোষণা করে বিচারপতি কাশেফা হোসেন ও বিচারপতি ফাতেমা নজিবের বেঞ্চ বুধবার এই রায় দেন।

শূন্য পদের বিপরীতে ২০১৭ সালে পরীক্ষা নেওয়ার পর ২০১৮ সালের ২৭ নভেম্বর উত্তীর্ণ ১৮ হাজার ৩১২ জনকে নিবন্ধন সনদ দেওয়া হয়। এর মধ্যে ৪৮৩ জন সংক্ষুব্ধ প্রার্থী গত বছর হাইকোর্টে রিট আবেদন করেন।

বিজ্ঞাপন

তারা নিয়োগ সুপারিশে এনটিআরসিএর নিষ্ক্রিয়তা চ্যালেঞ্জ করেন রিটে। হাইকোর্ট গত বছরের ৬ জুন রুল জারি করেন। শূন্য পদে উত্তীর্ণ এসব প্রার্থীকে নিয়োগ সুপারিশে এনটিআরসিএর নিষ্ক্রীয়তা কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না এবং রিট আবেদনকারীদের নিয়োগে সুপারিশ করতে কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না, তা জানতে চাওয়া হয় রুলে। সে রুলটিই যথাযথ ঘোষণা করে রায় দিলেন উচ্চ আদালত।

আদালতে রিট আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী এম মনিরুজ্জামান আসাদ ও মো. ফারুক হোসেন। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মো. নুর-উস-সাদিক।

আইনজীবী এম মনিরুজ্জামান আসাদ কালের কণ্ঠকে বলেন, এর আগে ত্রয়োদশ নিবন্ধন পরীক্ষায় উত্তীর্ণ নিয়োগ বঞ্চিত ২ হাজার ২০৭ জন এনটিআরসিএর নিষ্ক্রিয়তা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট করেছিলেন। হাইকোর্ট তাদের নিয়োগে সুপারিশ করতে এনটিআরসিকে নির্দেশ দিয়েছিলেন। তখন ওই রায়ের বিরুদ্ধে এনটিআরসিএ আপিল করলে আপিল বিভাগ হাইকোর্টের রায় বহাল রাখেন। তারই ধারাবাহিকতায় গত বছর ৯টি রিটে দুই হাজার ১৭৬ জন নিয়োগ প্রার্থী রিট করেন। গত ১ জুন রায়ে হাইকোর্ট তাদের নিয়োগের সুপারিশ করতে এনটিআরসিকে নির্দেশ দিয়েছেন। আজ চতুর্দশ নিবন্ধন পরীক্ষায় উত্তীর্ণ ৪৮৩ জনের নিয়োগে সুপারিশ করতে নির্দেশ দিয়েছেন।

মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বিভাগের সচিব, কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষা বিভাগের সচিব, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (ডিজি), এনটিআরসিএর চেয়ারম্যানসহ সাতজনকে রিটে বিবাদী করা হয়েছিল।



সাতদিনের সেরা