kalerkantho

শুক্রবার । ১ জুলাই ২০২২ । ১৭ আষাঢ় ১৪২৯ । ১ জিলহজ ১৪৪৩

‘বিএনপি নেতারা ঘরে বসে বানভাসিদের জন্য মায়াকান্না করছে’

অনলাইন ডেস্ক   

২৩ জুন, ২০২২ ১৭:১৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



‘বিএনপি নেতারা ঘরে বসে বানভাসিদের জন্য মায়াকান্না করছে’

বানভাসি মানুষের পাশে আওয়ামী লীগ যেমন দাঁড়িয়েছে, তেমনি প্রশাসন, সশস্ত্র বাহিনী, পুলিশসহ আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা কাজ করে যাচ্ছেন উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, প্রতিনিয়ত তাদের উদ্ধার ও চিকিৎসা প্রদান, খাদ্য প্রদান ও অন্যান্য সহায়তা প্রদানে সেখানে এতটুকু গাফিলতি নেই। প্রথম দিন থেকেই আমরা বানভাসি মানুষের পাশে আছি।

আজ বৃহস্পতিবার সকালে দলের ৭৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনাসভায় সভাপতির ভাষণে তিনি এ কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, যেসব প্রত্যন্ত অঞ্চলে কেউ যেতে পারছে না, সেখানে খবর পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই সশস্ত্র বাহিনীর মাধ্যমে হেলিকপ্টারে করে সেখানে সাহায্য পাঠানো হচ্ছে।

বিজ্ঞাপন

উদ্ধার তৎপরতা চালানো বা খাদ্য পৌঁছানো হচ্ছে। অথচ যারা আজ পর্যন্ত বন্যায় বানভাসি মানুষকে এক মুঠো খাবারও দিতে পারেনি, তাদের পাশে দাঁড়ায়নি, ঘরে বসে সেই বিএনপি শুধু মায়াকান্না করছে, এটাই তাদের চরিত্র।

তিনি বলেন, পদ্মা সেতু নিয়ে প্রশ্ন তুলছে বিএনপি। দুর্নীতিবাজরা প্রশ্ন তোলে কী করে! তারা নানা প্রকল্পে দুর্নীতি করেছে। জনগণের জন্য তো কিছুই করেনি। আওয়ামী লীগ নিজের নয়, দেশের জনগণের ভাগ্য গড়তে এসেছে। খালেদা জিয়ার রেখে যাওয়া নাম্বার ওয়ান দুর্নীতির অবস্থান থেকে এখন বাংলাদেশকে মর্যাদাশীল অবস্থানে নিয়ে এসেছি। উন্নয়নশীল দেশ হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছে বাংলাদেশ।

এ সময় তিনি বিএনপির সমালোচনা করে বলেন, নেতৃত্বশূন্য কোনো দল নির্বাচন করবে আর জনগণ ভোট দেবে কী দেখে? ওই চোর, ঠকবাজ, এতিমের অর্থ আত্মসাৎ অথবা খুন করা, অস্ত্র চোরাকারবারি, সাজাপ্রাপ্ত আসামি তাদেরকে এ দেশের জনগণ ভোট দেবে দেশ পরিচালনার জন্য? তা তো এ দেশের জনগণ দেবে না।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ১৯৪৯ সালের ২৩ জুন আওয়ামী লীগ গঠনের মাধ্যমে আবার এই ভূখণ্ড স্বাধীনতা অর্জন করে। আমরা পাই স্বাধীন-সার্বভৌম বাংলাদেশ। আওয়ামী লীগ জন্মলগ্ন থেকে এই ভূখণ্ডের মানুষের অধিকার আদায়ের জন্য সংগ্রাম করেছে এবং সাফল্য এনেছে। আওয়ামী লীগের ইতিহাস আর বাংলাদেশের ইতিহাস একই ইতিহাস বলে মন্তব্য করেন তিনি।



সাতদিনের সেরা