kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৮ জুন ২০২২ । ১৪ আষাঢ় ১৪২৯ । ২৭ জিলকদ ১৪৪৩

বাণিজ্যমন্ত্রীর নেতৃত্বে বাংলাদেশের প্রতিনিধি দলের আলমেরিয়া সফর

ইসমাইল হোসাইন রায়হান, স্পেন থেকে    

২৬ মে, ২০২২ ১৬:০৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বাণিজ্যমন্ত্রীর নেতৃত্বে বাংলাদেশের প্রতিনিধি দলের আলমেরিয়া সফর

আলমেরিয়ার কৃষি মডেল, বিশেষ করে পারিবারিক খামার, খোলা ফসল, হাইড্রোপনিক চাষ পদ্ধতি এবং প্যাকেজিং যন্ত্রপাতি সম্পর্কে জানতে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুশির নেতৃত্বে বাংলাদেশের প্রতিনিধি দল সোমবার (২৫ মে) আলমেরিয়া সফর করেছে। এ সফরে বাজারের সমস্যাগুলো সমাধানের জন্য বিভিন্ন সভা অনুষ্ঠিত হবে।  

আলমেরিয়ায় আয়োজিত এক বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ সরকারের বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি, স্পেনে বাংলাদেশ দূতাবাসের রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ সারওয়ার মাহমুদ এনডিসি, দূতাবাসের কমার্শিয়াল কাউন্সিলর মো. রেদওয়ান আহমেদ, আক্তার গ্রুপের চেয়ারম্যান জনাব ডক্টর কে. এম আক্তারুজ্জামান (সিআইপি) এবং এনভয় গ্রুপের চেয়ারম্যান জনাব কুতুব উদ্দিন আহমেদ, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মোহাম্মদ মোস্তফা জামাল হায়দার, আলমেরিয়া চেম্বার অফ কমার্সের সভাপতি জেরোনিমো প্যারা, স্পেনের ব্যবসায়ী নুরিয়া লোপেজ এবং রাফায়েল গনজালেজ। নয়জন অর্থনৈতিক ও সরকারি প্রতিনিধি নিয়ে গঠিত এ প্রতিনিধি দল আলমেরিয়া প্রদেশ পরিদর্শন করেন।

বিজ্ঞাপন

চেম্বার অফ আলমেরিয়ার সভাপতি জেরোনিমো প্যারা বাংলাদেশের বাণিজ্যমন্ত্রী এবং নুরিয়া লোপেজকে তাদের সফরের জন্য ধন্যবাদ জানান। এ বৈঠকের গুরুত্ব তুলে ধরে তিনি বলেন, আলমেরিয়া প্রদেশের একজন বাণিজ্যমন্ত্রী থাকা গুরুত্বপূর্ণ। বাংলাদেশ আমাদের প্রধান শিল্পের ওপর দৃষ্টি নিবদ্ধ করেছে এবং কীভাবে আমরা 'আলমেরিয়া মিরাকেল'-এ পৌঁছানোর আগ পর্যন্ত কৃষিতে উন্নয়ন ঘটিয়েছি তা জানতে চায়। কীভাবে আলমেরিয়ার মতো একটি  দরিদ্র এলাকা কৃষিক্ষেত্রে উন্নয়নের মাধ্যমে ইউরোপের একটি বড় অংশে কৃষিপণ্য পাঠায় তা জানতে আগ্রহী বাংলাদেশ। দেশটির প্রতিনিধি দলের প্রধান আগ্রহ আলমেরিয়ার কৃষি, বিশেষ করে পারিবারিক খামার, খোলা ফসল, হাইড্রোপনিক চাষ পদ্ধতি এবং প্যাকেজিং যন্ত্রপাতি সম্পর্কে জানা। আমরা এ প্রতিনিধি দলকে বিভিন্ন গ্রিন হাউজ এবং সহায়ক শিল্পগুলো দেখাতে করতে যাচ্ছি, যাতে তারা একটি ধারণা নিতে পারেন।  

টিপু মুনশি বলেন, আলমেরিয়ায় আসার কারণ কৃষিক্ষেত্রে মডেলটি কীভাবে তৈরি হয়েছে, কীভাবে এটি সামনে এগিয়েছে তা বোঝা। স্পেনের দরিদ্রতম প্রদেশগুলোর মধ্যে একটি আজ যে স্তরে পৌঁছেছে, বাংলাদেশকেও একই পথে এগোতে হবে। এখান থেকে অর্জিত শিক্ষা  আমার দেশকে সাহায্য করতে পারে। আমি বিশ্বাস করি যে, আলমেরিয়ার সঙ্গে ব্যবসায়ীক খাতে যোগাযোগ একটি আকর্ষণীয় ব্যাপার হতে পারে।

এ সফরে টেকনোভা ফাউন্ডেশনের টেকনলজিক্যাল সেন্টার এবং বায়োরিজন, প্রাইমাফ্লোর এবং কোপ্রোহনিজারের মতো কম্পানিগুলো পরিদর্শন করেন বাণিজ্যমন্ত্রী। গত ২২ মে বাংলাদেশের বাণিজ্যমন্ত্রী সরকারি সফরে স্পেনে যান।



সাতদিনের সেরা