kalerkantho

বুধবার । ২৯ জুন ২০২২ । ১৫ আষাঢ় ১৪২৯ । ২৮ জিলকদ ১৪৪৩

ছয় বছর পর বাংলাদেশে মার্কিন ফুলব্রাইট কর্মসূচি

কূটনৈতিক প্রতিবেদক   

২৫ মে, ২০২২ ২৩:৪০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ছয় বছর পর বাংলাদেশে মার্কিন ফুলব্রাইট কর্মসূচি

দীর্ঘ ছয় বছর পর বাংলাদেশে যুক্তরাষ্ট্রের ফুলব্রাইট কর্মসূচি আবারও চালু হয়েছে। ২০১৬ সালে হলি আর্টিজান সন্ত্রাসী হামলার পর নিরাপত্তা ঝুঁকির পর বাংলাদেশে ওই কর্মসূচি স্থগিত করা হয়েছিল। এরপর ফুলব্রাইট কর্মসূচির আওতায় বাংলাদেশিরা যুক্তরাষ্ট্রে গেলেও যুক্তরাষ্ট্র থেকে আসা বন্ধ ছিল।  

ঢাকায় যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাসের রাষ্ট্রদূত পিটার ডি হাস গতকাল বুধবার ব্র্যাক ইউনিভার্সিটিতে এক অনুষ্ঠানে এ দেশে যুক্তরাষ্ট্রের ফুলব্রাইট কর্মসূচি আবারও চালুর ঘোষণা দেন।

বিজ্ঞাপন

একই সঙ্গে তিনি ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয় ও যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তরের যৌথ উদ্যোগে ‘একাডেমি ফর উইমেন এন্টারপ্রেনারস’ চালুর ঘোষণা দেন। এই প্রথম কোনো বাংলাদেশি বিশ্ববিদ্যালয় এ ধরনের কর্মসূচি পরিচালনা করবে। এর মাধ্যমে ৫০ জন নারী উদ্যোক্তা সফল ব্যবসায়ীদের সঙ্গে প্রশিক্ষণার্থী হিসেবে বাস্তবিক চ্যালেঞ্জগুলো বুঝতে ‘মেন্টরশিপের’ সুযোগ পাবে।

ফুলব্রাইট প্রগ্রামের অধীনে যুক্তরাষ্ট্রের ফুলব্রাইট বিশেষজ্ঞ শ্যারন হার্ট নারী উদ্যোক্তা ও নেতৃত্ব প্রশিক্ষণের জন্য একটি পাঠ্যক্রম তৈরিতে সহায়তা করতে ব্র্যাক ইউনিভার্সিটির বিজনেস স্কুলের (বিবিএস) নারী ক্ষমতায়ন কেন্দ্রের সঙ্গে ছয় সপ্তাহ কাজ করবেন।  

অনুষ্ঠানে পিটার হাস বলেন, বাংলাদেশ আগামী কয়েক বছরের মধ্যে মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হতে যাচ্ছে এবং অর্থনৈতিক ক্ষমতায়নে নারীর ভূমিকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। তাই এখানে ফুলব্রাইট কর্মসূচি আবারও শুরু করা বিশেষ তাত্পর্যপূর্ণ। তিনি বলেন, এই কর্মসূচির মাধ্যমে হাজার হাজার মানুষ, শিক্ষার্থী, পেশাজীবী, গবেষক তাঁদের ধারণা বিনিময় করেছেন, দক্ষতা অর্জন করেছেন এবং বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধিতে ব্যাপক অবদান রেখেছেন।

যুক্তরাষ্ট্রের ফুলব্রাইট বিশেষজ্ঞ শ্যারন হার্ট, ব্র্যাক ইউনিভার্সিটি বোর্ড অব ট্রাস্টি তামারা হাসান আবেদ, ব্র্যাকের ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ভিনসেন্ট চ্যাং, ব্র্যাকের প্রফেসর সাং এইচ লি, প্রফেসর মতিন সাদ আবদুল্লাহ, প্রফেসর মোহাম্মদ মুজিবুল হক বক্তব্য দেন।



সাতদিনের সেরা