kalerkantho

সোমবার । ২৭ জুন ২০২২ । ১৩ আষাঢ় ১৪২৯ । ২৬ জিলকদ ১৪৪৩

গ্রামীণ টেলিকম : পাওনা পরিশোধ করছেন ইউনূস, মামলা প্রত্যাহার

নিজস্ব প্রতিবেদক    

২৪ মে, ২০২২ ০৩:১৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



গ্রামীণ টেলিকম : পাওনা পরিশোধ করছেন ইউনূস, মামলা প্রত্যাহার

মুহাম্মদ ইউনূস

নোবেলজয়ী মুহাম্মদ ইউনূসের বিরুদ্ধে ছাঁটাই, পাওনা নিয়ে গ্রামীণ টেলিকমের শ্রমিক-কর্মচারী ও শ্রমিক-কর্মচারী ইউনিয়নের করা শতাধিক মামলা প্রত্যাহার করা হয়েছে। আইন অনুযায়ী পাওনা টাকা পরিশোধ করা হবে—এমন এক সমঝোতার পরিপ্রেক্ষিতে গতকাল সোমবার বিচারপতি মুহাম্মদ খুরশীদ আলম সরকারের হাইকোর্ট বেঞ্চ থেকে মামলা প্রত্যাহার করে নেয় গ্রামীণ টেলিকম শ্রমিক-কর্মচারী ইউনিয়ন। মুহাম্মদ ইউনূসের মালিকানাধীন গ্রামীণ টেলিকমের অবসায়ন চাওয়া হয়েছিল এ মামলায়।

আদালতে গ্রামীণ টেলিকম শ্রমিক-কর্মচারী ইউনিয়নের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী ইউসুফ আলী।

বিজ্ঞাপন

মুহাম্মদ ইউনুস অর্থাৎ গ্রামীণ টেলিকমের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মোস্তাফিজুর রহমান খান।

ইউসুফ আলী কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘সম্প্রতি গ্রামীণ টেলিকমের শ্রমিক-কর্মচারীদের পাওনা, দাবি নিয়ে নিয়োগকারী কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আদালতের বাইরে একটি সমঝোতা হয়েছে। হিসাব-নিকাশ করে মালিকপক্ষ শ্রমিকদের আশ্বাস দিয়েছে, আইন অনুযায়ী যত পাওনা তা পরিশোধ করা হবে। দুই পক্ষই হিসাব-নিকাশে বসেছে। আশা করা যায়, কাল অথবা পরশু পাওনার চূড়ান্ত হিসাবে সমঝোতা হয়ে যাবে। এ নিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবেই ঘোষণা আসবে বলে মনে হয়। ’

তিনি বলেন, ‘যেহেতু আমার মক্কেল বলেছেন যে তাঁরা মামলাটি চালাতে চান না, তাই মামলাটি প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়েছে। ’

ইউসুফ আলী বলেন, ‘শ্রম আদালত ও উচ্চ আদালত মিলিয়ে মুহাম্মদ ইউনূসের বিরুদ্ধে ১১১টি মামলা করা হয়েছিল। এর মধ্যে হাইকোর্টে সাতটি, বাকি ১০৪টি শ্রম আদালতে। ’ সমঝোতার পর সব মামলাই প্রত্যাহার করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

আইনজীবী মোস্তাফিজুর রহমান খান কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘আদালতের বাইরে পারস্পরিক বোঝাপড়ায় মামলাগুলোর ব্যাপারে সমঝোতা হয়েছে। শ্রমিক-কর্মচারীদের একটা অঙ্কের টাকা দিয়ে দেওয়া হয়েছে। তাঁরা সে টাকা পেয়ে তাঁদের বাকি যে দাবিদাওয়া আছে, প্রত্যাহার করে সব মামলা প্রত্যাহার করে নিয়েছেন। ’

গ্রামীণ টেলিকমের শ্রমিক-কর্মচারীদের কত টাকা দেওয়া হয়েছে, জানতে চাইলে এই আইনজীবী বলেন, ‘সঠিক অঙ্কটা আমি বলতে পারব না। যতটুকু জেনেছি, সেটি সাড়ে তিন শ বা প্রায় ৪০০ কোটি টাকা হবে। ’

কম্পানির শ্রমিকের অংশের লভ্যাংশ শ্রমিক-কর্মচারীদের মধ্যে বণ্টন না করায় শ্রম আদালত ও হাইকোর্টে মামলা করেন তাঁরা। আর গ্রামীণ টেলিকমের অবসায়ন চেয়ে গত ৭ ফেব্রুয়ারি হাইকোর্টে আবেদন করে গ্রামীণ টেলিকমের শ্রমিক-কর্মচারী ইউনিয়ন।



সাতদিনের সেরা