kalerkantho

বুধবার । ২৯ জুন ২০২২ । ১৫ আষাঢ় ১৪২৯ । ২৮ জিলকদ ১৪৪৩

প্রধানমন্ত্রীকে কটূক্তি : রাশেদের বিরুদ্ধে সাক্ষ্যগ্রহণ ৫ নভেম্বর

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৩ মে, ২০২২ ১৮:৩৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



প্রধানমন্ত্রীকে কটূক্তি : রাশেদের বিরুদ্ধে সাক্ষ্যগ্রহণ ৫ নভেম্বর

ফেসবুক লাইভে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে কটূক্তি করার অভিযোগে দায়ের করা মামলায় গণ-অধিকার পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক মো. রাশেদ খানের বিরুদ্ধে সাক্ষ্যগ্রহণ পিছিয়ে আগামী ৫ নভেম্বর দিন ধার্য করেছেন আদালত। আজ সোমবার ঢাকার সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক জগলুল হোসেনের আদালত নতুন এই দিন ধার্য করেন।  

এদিন এ মামলার সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য ধার্য ছিল। তবে আদালতে সাক্ষী উপস্থিত না হওয়ায় রাষ্ট্রপক্ষ সময়ের আবেদন করে।

বিজ্ঞাপন

আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আদালত পরবর্তী সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য আগামী ৫ নভেম্বর দিন ধার্য করেন। এর আগে ২০২১ সালের ২২ নভেম্বর আদালত আসামির অব্যাহতির আবেদন করে অভিযোগ গঠনের মাধ্যমে বিচার শুরুর আদেশ দেন।

মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়, ২০১৮ সালের ২৭ জুন রাশেদ খান কোটা সংস্কার চাই নামের একটি ফেসবুক গ্রুপ থেকে ভিডিও লাইভে এসে বক্তব্য দেন। সেখানে তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে উদ্দেশ করে মানহানিকর বক্তব্য ও মিথ্যা তথ্য দেন। এসব মিথ্যা তথ্য ও গুজব ছড়িয়ে পড়লে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ সারা দেশের বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে আইন-শৃঙ্খলার অবনতি ঘটে―এমন অভিযোগে ওই বছরের ১ জুলাই রাজধানীর শাহবাগ থানায় রাশেদ খানের বিরুদ্ধে মামলাটি দায়ের করেন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয়।  

মামলার দিনই রাশেদকে গ্রেপ্তার করে পুলিশে। এরপর দুই দফায় ১০ দিনের রিমান্ডে নেওয়া হয় তাকে। এরপর তদন্ত শেষে তথ্য ও প্রযুক্তি আইনের ৫৭ ধারায় রাশেদকে অভিযুক্ত করে ২০২০ সালের ১৩ অক্টোবর আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা।



সাতদিনের সেরা