kalerkantho

শনিবার । ২ জুলাই ২০২২ । ১৮ আষাঢ় ১৪২৯ । ২ জিলহজ ১৪৪৩

অতীশ দীপঙ্কর ইউনিভার্সিটিতে শিক্ষার্থীদের নবীনবরণ ও সাংস্কৃতিকসন্ধ্যা

অনলাইন ডেস্ক   

২ এপ্রিল, ২০২২ ২১:২৬ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



অতীশ দীপঙ্কর ইউনিভার্সিটিতে শিক্ষার্থীদের নবীনবরণ ও সাংস্কৃতিকসন্ধ্যা

অতীশ দীপঙ্কর ইউনিভার্সিটি অব সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজির স্থায়ী ক্যাম্পাসে স্প্রিং-২০২২ সেমিস্টারের নবাগত ছাত্র-ছাত্রীদের নিয়ে নবীনবরণ ও সাংস্কৃতিকসন্ধ্যা অনুষ্ঠিত হয়েছে। অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় অংশে নাচ, গান, আবৃত্তি, নাটক, কৌতুকসহ মনোজ্ঞ পরিবেশনা তুলে ধরেন বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন ব্যাচের শিক্ষার্থীরা।

অতীশ দীপঙ্কর ইউনিভার্সিটির উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. জাহাঙ্গীর আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী। শিক্ষার্থীদের যোগ্য ও দক্ষ মানুষ হওয়ার আহ্বান জানিয়ে উপমন্ত্রী বলেন, ‘তোমরা নিজেদেরকে কর্মসংস্থানের উপযোগী ব্যক্তি হিসেবে গড় তোলো।

বিজ্ঞাপন

শুধু সার্টিফিকেট অর্জনের জন্য জয়, পাশাপাশি ইন্ডাস্ট্রি উপযোগী একজন দক্ষ জনবল হিসেবে নিজেকে তৈরি করতে হবে। ’

মনোজ্ঞ অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অতীশ দীপঙ্কর ইউনিভার্সিটি বোর্ড অব ট্রাস্টিজের চেয়ারম্যান লিয়াকত সিকদার, বোর্ড অব ট্রাস্টিজের সম্মানিত সদস্য প্রফেসর ড. এম শাহীন খান, সৈয়দ মোহাম্মদ হেমায়েত হোসেন, মো. জোনায়েত আহমেদ ও তানভীর ইসলাম পাটোয়ারী।

চেয়ারম্যান লিয়াকত সিকদার বলেন, ‘তোমরা একটি সঠিক ও মানসম্মত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বেছে নিয়েছ। এই বিশ্ববিদ্যালয় তোমাদের নৈতিকতা ও বুদ্ধিবৃত্তিক গঠনে উচ্চশিক্ষা প্রদান করবে। তোমাদের প্রাতিষ্ঠানিক ও ব্যাবহারিক জ্ঞানার্জনে সাহায্য করাই হচ্ছে এই ইউনিভার্সিটির দর্শন। ’

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য মো. জাহাঙ্গীর আলম তার বক্তব্যে বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয় হলো গবেষণার মাধ্যমে নতুন নতুন জ্ঞান উৎপন্ন ও বিতরণের স্থান। ’ তিনি শিক্ষকমণ্ডলীকে গবেষণাকাজে উৎসাহ প্রদান করে বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ের বাজেটের একটি অংশ গবেষণার জন্য বরাদ্দ থাকবে। ’

প্রফেসর ড. এম শাহীন খান বলেন, ‘আন্তর্জাতিক মানের গ্র্যাজুয়েট তৈরির লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে অতীশ দীপঙ্কর বিশ্ববিদ্যালয়। আমাদের প্রায় ৪০ হাজার অ্যালামনাই দেশে-বিদেশে যোগ্যতার সাথে কাজ করছে। ’

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের সচিব ড. ফেরদৌস জামান এবং পরিচালক  ওমর ফারুখ। ইউনিভার্সিটির নানাবিধ কর্মকাণ্ড দেখে সন্তোষ প্রকাশ করেন বিশেষ অতিথিরা। তারা বলেন, আধুনিক ও ডিজিটাল শিক্ষা প্রদানের মাধ্যমে দেশ গঠনে অগ্রণী ভূমিকা পালন করছে এই বিশ্ববিদ্যালয়। মন্ত্রণালয় ও ইউজিসির নিয়মনীতি মেনে চলায় পঞ্চম বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে স্থায়ী সনদ অর্জন করেছে এই বিশ্ববিদ্যালয়।

উৎসবমুখর এই অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন অতীশ দীপঙ্কর ইউনিভার্সিটির বিভিন্ন অনুষদের ডিন, অ্যাডভাইজার, রেজিস্ট্রার, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক, আইএমসি অ্যাডভাইজার, বিভাগীয় প্রধান, কো-অর্ডিনেটের, শিক্ষক, শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা। দিনব্যাপী এই অনুষ্ঠানে ছাত্র-ছাত্রী, অভিভাবক ও আমন্ত্রিত অতিথিদের পদচারণে পুরো ক্যাম্পাস মুখরিত হয়ে ওঠে।



সাতদিনের সেরা