kalerkantho

সোমবার ।  ১৬ মে ২০২২ । ২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ । ১৪ শাওয়াল ১৪৪৩  

আক্রান্তদের ৮৫ শতাংশই টিকা না নেওয়া : স্বাস্থ্যমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক   

২৫ জানুয়ারি, ২০২২ ২১:২৯ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



আক্রান্তদের ৮৫ শতাংশই টিকা না নেওয়া : স্বাস্থ্যমন্ত্রী

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, 'করোনার নতুন ভেরিয়েন্ট ওমিক্রনের কারণে দেশে আক্রান্ত রোগীদের প্রায় ৮৫ ভাগই নন-ভ্যাক্সিনেটেড। এ পর্যন্ত দেশের ১৪ কোটির মতো মানুষকে ভ্যাক্সিন দেওয়া সম্ভব হয়েছে। তবে আমাদের টার্গেট পপুলেশনের আরো তিন কোটি মানুষকে এখনো ভ্যাক্সিন দেওয়া সম্ভব হয়নি, যাদের অধিকাংশই পরিবহন খাতের, শিল্প-কারখানায় কর্মরত সদস্য বা বিভিন্ন দোকানপাটে কর্মরত কর্মী বাহিনীর সদস্য। '

আজ মঙ্গলবার বিকেলে অনলাইন জুম প্ল্যাটফর্মে অংশ নিয়ে বাংলাদেশ প্রাইভেট মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশন কর্তৃক আয়োজিত 'ওমিক্রন মোকাবেলায় প্রস্তুতি ও করণীয়' শীর্ষক জরুরি মতবিনিময়সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

বিজ্ঞাপন

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, 'দ্রুতই আমাদের এই তিন কোটি নন-ভ্যাক্সিনেটেড মানুষকে ভ্যাক্সিনেশনের আওতায় নিয়ে আসা হবে। এটি সময়মতো করা গেলে ওমিক্রনের কারণে দেশে ক্ষতির পরিমাণ অনেকটাই কমে যাবে। দেশে এখন ওমিক্রন খুব দ্রুততার সাথে বৃদ্ধি পাচ্ছে। কিন্তু সে অনুযায়ী মানুষ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলছে না। দেশে সংক্রমণের হার মাত্র ১ ভাগ থেকে বেড়ে ৩২ ভাগ হয়েছে। মৃত্যুহার মাত্র ১ ভাগ থেকে ১৭ ভাগ হয়ে গেছে। অথচ বাণিজ্য মেলায় দেখা যাচ্ছে মানুষ গাদাগাদি করে চলাফেরা করছে। সেখানে অনেকেই মাস্ক পরিধান করছে না। দেশের অন্যান্য জনবহুল স্থানেও একই অবস্থা রয়েছে। '

তিনি বলেন, সরকার কভিডের প্রথম দুটি ঢেউ দেশের মানুষের সহায়তায় সফল হয়েছে। এবারও দেশের মানুষের সহায়তা ছাড়া সফল হওয়া সম্ভব হবে না। আর এ যাত্রায় সফল হতে সবাইকে মাস্ক পরতে হবে, স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে।

সভায় দেশের বিভিন্ন প্রাইভেট মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের চেয়ারম্যান,পরিচালক ও প্রতিনিধিগণ উপস্থিত থেকে বক্তব্য দেন। বাংলাদেশ এভারকেয়ার হাসপাতালের ব্যাবস্থাপনা পরিচালক ডা. আরিফ ওমিক্রনে আক্রান্ত ব্যক্তিদের কত দিন আইসোলেশনে রাখা হবে তা নিয়ে জনমনে সংশয় আছে জানালে স্বাস্থ্যমন্ত্রী আইসোলেশন পলিসি সংক্রান্ত বিষয়টি নিয়ে দ্রুতই একটি সমন্বিত সিদ্ধান্ত জানাবেন বলে আশ্বস্ত করেন।

সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে ত্রাণ ও দুর্যোগ মন্ত্রণালয় প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান বলেন, 'ওমিক্রন নিয়ে আমাদের ভয় পেলে চলবে না। আমাদেরকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। করোনা মোকাবেলায় সরকার বিগত দুটি ঢেউ যেভাবে সফল হয়েছে, একইভাবে এবারও তৃতীয় ঢেউ মোকাবেলা করে সরকার সফল হবে। '

বাংলাদেশ প্রাইভেট মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মুবিন খানের সভাপতিত্বে সভায় আরো বক্তব্য দেন আনোয়ার খান মেডিক্যাল কলেজের চেয়ারম্যান ও বাংলাদেশ প্রাইভেট মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশনের মহাসচিব আনোয়ার হোসেন খান এমপি, স্বাস্থ্য শিক্ষা বিভাগের সচিব সাইফুল ইসলাম বাদল, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক প্রফেসর এ বি এম খুরশিদ আলম, স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব নাজমুল হাসান, স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক প্রফেসর ডা. এনায়েত হোসেন, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) ডা. আহমেদুল কবীর প্রমুখ।



সাতদিনের সেরা