kalerkantho

শনিবার । ১৫ মাঘ ১৪২৮। ২৯ জানুয়ারি ২০২২। ২৫ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

আবরার হত্যা মামলার রায়ে ন্যায়বিচার করা হয়েছে : আইনমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক   

৮ ডিসেম্বর, ২০২১ ১৯:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



আবরার হত্যা মামলার রায়ে ন্যায়বিচার করা হয়েছে : আইনমন্ত্রী

আবরার হত্যা মামলার রায়ে প্রকৃত ও ন্যায়বিচার করা হয়েছে উল্লেখ করে আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক বলেন, আবরার হত্যা মামলা রায়ে এটা প্রমাণ হয় যে দেশে আইনের শাসন আছে। আজ বুধবার বিকালে রাজধানীর গুলশানে নিজ আবাসিক  কার্যালয়ে বুয়েটের ছাত্র আবরার হত্যা মামলার রায়ের বিষয়ে প্রতিক্রিয়া জানাতে তিনি এই মন্তব্য করেন।  

আনিসুল হক বলেন, আপাত দৃষ্টিতে মনে হয়েছে যে, এই মামলায়  প্রকৃত ও ন্যায়বিচার করা হয়েছে। এই রায়ের মাধ্যমে রাষ্ট্রপক্ষ প্রমাণ করতে পেরেছে যে, দেশে আইনের শাসন আছে।

বিজ্ঞাপন

এখন কেউ এরকম হত্যাকাণ্ড ঘটিয়ে বা কোনো রকম কাণ্ড ঘটিয়ে কোনো অপরাধী ঘুরে বেড়াতে পারবে না। তারা রাজনীতি করতে পারবে না। বিরোধী দলীয় নেতা হওয়ার 'অডারসিটি' দেখাতে পারবে না।   তিনি বলেন, এই রায়ের নথিপত্র আগামী সাত দিনের মধ্যে হাইকোর্টে চলে যাবে।   সেখানে মামলাটি  দ্রুত নিষ্পত্তি হওয়ার ব্যাপারে সরকার সব ধরনের সহযোগিতা করবে।

মন্ত্রী বলেন, সমাজে কিছু কিছু হত্যাকান্ড আছে যা সমাজকে নাড়া দেয়, সমাজের বিবেককে নাড়া দেয়। এই সব হত্যাকাণ্ডের বিচার করা না হলে সমাজে হতাশা দেখা দেয়। সরকারের দায়িত্ব এই মামলাগুলো তড়িৎ বিচার করে, দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করে সমাজকে আশ্বস্ত করা যে, দেশে আইনের শাসন বিরাজ করছে। তিনি বলেন, এই দায়িত্ব পালনে শেখ হাসিনার সরকার এখন পর্যন্ত সক্ষম হয়েছে।  

বেগম খালেদা জিয়ার বিষয়ে তিনি বলেন, ফোরজারী কার্যবিধির ৪০১ ধারায়  যে দরখাস্ত একবার নিষ্পত্তিকৃত হয়ে থাকে, সেই দরখাস্তকে আবার পুনরুজ্জীবিত করার কোন 'স্কোপ' নাই। তার এই আইনি ব্যাখ্যাই সঠিক।   বিএনপি'র ১৫ জন আইনজীবী তাঁর সঙ্গে দেখা করে যে বক্তব্য দিয়েছেন সে বিষয়ে  এই উপমহাদেশের কোন আদালতের কোন নজির আছে কিনা তিনি সেটা খতিয়ে দেখছেন, এখনো তা শেষ হয়নি, প্রায় শেষ প্রান্তে। কিছুদিনের মধ্যেই এই সিদ্ধান্ত পাওয়া যাবে।

পদত্যাগকারী তথ্য প্রতিমন্ত্রীর বিষয়ে আইনমন্ত্রী বলেন, তার কর্মকাণ্ডে আমি গভীরভাবে ক্ষুদ্ধ। শুধু সাংসদ নয়, কোনো বিবেকবান মানুষ এটা করতে পারে না।



সাতদিনের সেরা