kalerkantho

মঙ্গলবার । ১১ মাঘ ১৪২৮। ২৫ জানুয়ারি ২০২২। ২১ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

খালেদা জিয়ার কিছু হলে আন্দোলনের আগুন জ্বলবে : রিজভী

অনলাইন ডেস্ক   

১ ডিসেম্বর, ২০২১ ১৬:১৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



খালেদা জিয়ার কিছু হলে আন্দোলনের আগুন জ্বলবে : রিজভী

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, বেগম খালেদা জিয়ার কিছু হলে সারা দেশে আন্দোলনের আগুন জ্বলবে। এই আগুন মিট মিট করে জ্বলবে না, এই আগুন ধিকিধিকি করে জ্বলবে না। এই আগুন ধাও ধাও করে জ্বলবে এবং অত্যাচারীদের সকল শৃঙ্খল ছাড়খাড় করে পুড়িয়ে দিবে।

আজ বুধবার জাতীয়তাবাদী মহিলা দলের উদ্যোগে নয়াপল্টনে বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ও তাকে বিদেশে উন্নত চিকিৎসার দাবিতে বিক্ষোভ মিছিলে তিনি এসব কথা বলেন।

বিজ্ঞাপন

রুহুল কবির রিজভী বলেন, সরকারের উদ্দেশ্য খারাপ। তারা খালেদা জিয়ার জীবন নিয়ে ছিনিমিনি খেলছে। প্রধানমন্ত্রী চান খালেদা জিয়া মুক্ত বিএনপি মুক্ত বাংলাদেশ। সে কারণে যে করেই হোক খালেদা জিয়াকে পৃথিবী থেকে সরিয়ে দিতে হবে। খালেদা জিয়ার সুস্থ হওয়াকে আপনি বিপদ মনে করছেন। এই বিপদ দেখেই নানা টালবাহানা করছেন।

আইনে না থাকায় খালেদা জিয়াকে বিদেশে চিকিৎসা করানোর কোনো সুযোগ নেই আইনমন্ত্রীর এমন বক্তব্যের সমালোচনা করে তিনি বলেন, আপনি কোথা থেকে আইন পেয়েছেন। আপনি মিথ্যা কথা বলছেন। তিনবারের সাবেক প্রধানমন্ত্রীকে নির্যাতন করার জন্যই আইনমন্ত্রী এই কথা বলছেন।

তিনি বলেন, সোয়াশো বছর আগের প্রিজন অ্যাক্টের বিধান অনুযায়ী সরকার একজনকে চিকিৎসার জন্য পাঠাতে পারে। সাজা মওকুফ করতে পারে। সবকিছু করতে পারে। আর যার মৃত্যুর ঝুঁকি আছে তার সবকিছু মাফ করে চিকিৎসার বন্দোবস্ত করতে পারে। কিন্তু তাজ্জব ব্যাপার, আইনমন্ত্রী বলছেন তাকে বিদেশ যেতে হলে আবার কারাগারে গিয়ে আবেদন করতে হবে। মিথ্যাবাদী এই আইনমন্ত্রী। প্রচলিত যে আইন আছে সেই আইনেই দেশনেত্রী খালেদা জিয়া চিকিৎসার জন্য বিদেশে যেতে পারেন।

এ সময় আইনমন্ত্রীকে প্রশ্ন করে রিজভী বলেন, আপনাদের নেতা মো. নাসিম যে কারাগারে থাকা অবস্থায় বিদেশে চিকিৎসার জন্য গেছেন সেটা কোন আইনে গেছেন?

বিক্ষোভ সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য সেলিমা রহমান, আফরোজা আব্বাস, সুলতানা আহমেদ, নিলুফার চৌধুরী মনি, হেলেন জেরিন খান প্রমুখ।



সাতদিনের সেরা