kalerkantho

শনিবার । ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ২৭ নভেম্বর ২০২১। ২১ রবিউস সানি ১৪৪৩

বেগুনবাড়িতে ফ্ল্যাট পেলেন হাতিরঝিলের ক্ষতিগ্রস্তরা

অনলাইন ডেস্ক   

২৪ নভেম্বর, ২০২১ ০৩:১৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বেগুনবাড়িতে ফ্ল্যাট পেলেন হাতিরঝিলের ক্ষতিগ্রস্তরা

রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ কর্তৃক বাস্তবায়িত বেগুনবাড়ি খালসহ হাতিরঝিল এলাকার সমন্বিত উন্নয়ন প্রকল্পে অধিগ্রহণকৃত ক্ষতিগ্রস্তদের প্রত্যেককে একটি করে ফ্ল্যাট প্রদান করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৩ নভেম্বর) রাজধানীর নিকেতনে রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের ম্যানেজমেন্ট ভবনে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান এমপি এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে গৃহায়ণ ও গণপূর্ত প্রতিমন্ত্রী শরীফ আহমেদ এমপি উপস্থিত থেকে এসব ফ্ল্যাটের বরাদ্দপত্র প্রদান করেন।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান এমপি বলেন, বেগুনবাড়ি খালসহ হাতিরঝিল এলাকার সমন্বিত উন্নয়ন প্রকল্পের অধিগ্রহণজণীত ক্ষতিগ্রস্তদের প্রকল্প এলাকায় ফ্ল্যাট বরাদ্দ প্রদান আমাদের জন্য একটি আনন্দের বিষয়। প্রকল্প এলাকায় যাদের জমি অধিগ্রহণ করা হয়েছে এবং ভৌত অবকাঠামো অপসারজনিত কারণে যারা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে তাদের আবাসনের ব্যবস্থা করা সরকারের অন্যতম একটি মৌলিক দায়িত্ব ছিল। গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয় ও রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের সংশ্লিষ্ট সকলে এ দায়িত্ব যথাযথভাবে পালন করায় সংশ্লিষ্ট সকলকে তিনি ধন্যবাদ জানান। 

প্রকল্প এলাকায় একটি নতুন থানা নির্মাণের ব্যাপারে মন্ত্রী গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতা কামনা করেন।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী শরীফ আহমেদ এমপি প্রকল্পের বিভিন্ন তথ্য-উপাত্ত তুলে ধরেন।

তিনি বলেন, প্রকল্প বাস্তবায়নের জন্য ৩১০.১৪ একর জমি অধিগ্রহণ করতে হয়েছে যার মধ্যে ১৩৯.৯৬ একর জমি ব্যক্তিমালিকানাধীন ছিল। প্রকল্প এলাকা বেগুনবাড়ি মৌজায় ০.৯৩ একর জমিতে ১৫তলা বিশিষ্ট দুটি ভবনে মোট ১১২টি ফ্ল্যাট নির্মাণ করা হয়েছে। তন্মধ্যে অধিগ্রহণজনিত ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে অর্ধেক মূল্যে ৫৬টি ফ্ল্যাট বরাদ্দ প্রদান করা হয়।

গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. শহীদ উল্লা খন্দকারের সভাপতিত্বে আয়োজিত এই অনুষ্ঠানে রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান এবিএম আমিন উল্লাহ নূরী, গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. হেমায়েত হোসেনসহ মন্ত্রণালয় ও রাজউকের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।



সাতদিনের সেরা