kalerkantho

সোমবার । ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ২৯ নভেম্বর ২০২১। ২৩ রবিউস সানি ১৪৪৩

পাটুরিয়ায় ফেরিডুবি

আরো একটি কাভার্ড ভ্যান টেনে তুলল হামজা ক্রেন

মারুফ হোসেন, আঞ্চলিক প্রতিনিধি, মানিকগঞ্জ    

২৮ অক্টোবর, ২০২১ ১২:৪৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



আরো একটি কাভার্ড ভ্যান টেনে তুলল হামজা ক্রেন

ডুবে যাওয়া একটি কাভার্ড ভ্যান টেনে তুলছে হামজা ক্রেন। ছবি: কালের কণ্ঠ

মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া ঘাটে ফেরিডুবির ঘটনায় আরো একটি কাভার্ড ভ্যান উদ্ধার করা হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার (২৮ অক্টোবর) বেলা পৌনে ১২টার দিকে বিআইডাব্লিউটিএ'র উদ্ধারকারী জাহাজ হামজা যানটিকে টেনে তোলে ক্রেন দিয়ে।

এ নিয়ে এ পর্যন্ত মোট পাঁচটি ট্রাক ও কাভার্ড ভ্যান উদ্ধার করা হলো।

ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট, নৌবাহিনী, নৌপুলিশ, কোস্ট গার্ড, বিআইডাব্লিউটিএ'র উদ্ধারকর্মীরা এ কাজে অংশ নিচ্ছেন।

উদ্ধার হওয়া কাভার্ড ভ্যানের মালিক মো. আরাফাত হোসেন জানান, বেনাপোল থেকে মাছের খাবার নিয়ে ঢাকায় আসছিলেন তিনি। বুধবার সকাল পৌনে ১০টার দিকে পদ্মা পার হওয়ার সময় পাটুরিয়া ৫ নম্বর ঘাটের কাছে ডুবে যায় বহনকারী রো রো ফেরি আমানত শাহ। অবশেষে আজ তাঁর কাভার্ড ভ্যানটি উদ্ধার হয়েছে। গাড়িটি আফজাল পার্সেল অ্যান্ড কুরিয়ার সার্ভিসের বলেও জানান তিনি। 

ফায়ার সার্ভিস মানিকগঞ্জের উপসহকারী পরিচালক মো. শরীফুল ইসলাম জানান, দ্বিতীয় দিনের মতো আজ বৃহস্পতিবার (২৮ অক্টোবর) সকাল সাড়ে ৮টায় উদ্ধারকাজ শুরু হয়। ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট, নৌবাহিনীর কোস্ট গার্ড, বিআইডাব্লিউটিএ যৌথভাবে উদ্ধার কাজে অংশ নিচ্ছে। কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি। আজ একটি কাভার্ড ভ্যান উদ্ধার করা হয়েছে। উদ্ধারকারী জাহাজ হামজা কাজ করছে। প্রত্যয় নামের উদ্ধারকারী জাহাজ এখনো ঘটনাস্থলে পৌঁছেনি।

এদিকে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হলেও আজ বিকেলে তদন্তকাজ শুরুর কথা রয়েছে এ কমিটির। দুর্ঘটনায় ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ এখন পর্যন্ত নিরূপণ করা সম্ভব হয়নি বলে সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে।

গতকাল বুধবার সকাল পৌনে ১০টার দিকে মানিকগঞ্জের পাটুরিয়ার পাঁচ নম্বর ঘাটে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এতে পণ্যবাহী ট্রাকসহ রো রো ফেরি আমানত শাহ কাত হয়ে ডুবে যায়। ফেরিতে থাকা ১৭টি ট্রাকের মধ্যে দুটি কাভার্ড ভ্যান পন্টুনে নামতে সক্ষম হলেও বাকি ট্রাকগুলো ফেরির সঙ্গে পানিতে ডুবে যায়। ফেরিতে ৮-৯টি মোটরসাইকেল ছিল বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান।



সাতদিনের সেরা