kalerkantho

শনিবার । ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ৪ ডিসেম্বর ২০২১। ২৮ রবিউস সানি ১৪৪৩

আত্মপ্রকাশের পরই নুরের রাজনৈতিক দল নিষিদ্ধের দাবি

অনলাইন ডেস্ক   

২৬ অক্টোবর, ২০২১ ১৭:৫২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



আত্মপ্রকাশের পরই নুরের রাজনৈতিক দল নিষিদ্ধের দাবি

আত্মপ্রকাশের পরপরই অর্থনীতিবিদ ড. রেজা কিবরিয়া ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) সাবেক ভিপি নুরুল হক নুরের নতুন রাজনৈতিক দল ‘বাংলাদেশ গণ অধিকার পরিষদ’কে দ্রুত নিষিদ্ধের দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ। একই সঙ্গে সাম্প্রদায়িক হামলায় মদদ দেওয়ার অভিযোগ তুলে রেজা কিবরিয়া ও নুরুল হককে গ্রেপ্তারের দাবি জানানো হয়।

আজ মঙ্গলবার (২৬ অক্টোবর) দুপুরে দলটির আত্মপ্রকাশের পরই দলটি এবং এর সহযোগী সংগঠন ছাত্র ও যুব অধিকার পরিষদকে ‘জঙ্গি, সাম্প্রদায়িক ও সন্ত্রাসী সংগঠন’ আখ্যা দিয়ে দলটি নিষিদ্ধের দাবি জানায় বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ।

আত্মপ্রকাশের পর দুপুরে শাহবাগ মোড় অবরোধ করেন বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের নেতা-কর্মীরা। দুপুর ১২টা থেকে সাড়ে ১২টা পর্যন্ত চলে এই অবরোধ। অবরোধের কারণে শাহবাগ থেকে পল্টন, বাংলামোটর, সায়েন্সল্যাব ও টিএসসি অভিমুখী মূল সড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়৷

শাহবাগে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের নেতা-কর্মীদের সমাবেশে অংশ নিয়ে স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের যুগ্ম মহাসচিব অধ্যাপক উত্তম কুমার বড়ুয়া বলেন, রেজা কিবরিয়া ও নুরুল হকেরা দেশব্যাপী সাম্প্রদায়িক হামলার মদদদাতা হিসেবে বাংলাদেশবিরোধী ষড়যন্ত্রে লিপ্ত। এরা জামায়াত-শিবিরের এজেন্ডা বাস্তবায়ন করার জন্য মাঠে নেমেছেন। তাদের সাম্প্রদায়িক সংগঠন দ্রুত নিষিদ্ধ করতে হবে।

মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক আল মামুন বলেন, সারা দেশে সাম্প্রদায়িক হামলায় রেজা কিবরিয়া ও নুরুল হকের প্রত্যক্ষ মদদ রয়েছে।

মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের কেন্দ্রীয় সভাপতি আমিনুল ইসলাম অভিযোগ করে বলেন, চট্টগ্রামের জে এম সেন হল পূজামণ্ডপে হামলার ঘটনায় সুস্পষ্ট প্রমাণসহ নুরুল হকের নেতৃত্বাধীন ছাত্র ও যুব অধিকার পরিষদের ১০ জনকে পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে।

এর আগে মঙ্গলবার ড. রেজা কিবরিয়াকে দলের আহ্বায়ক এবং নুরুল হক নুরকে সদস্য সচিব করে দলটির ১০১ সদস্য বিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটি ঘোষণা করা হয়। ‘জনতার অধিকার, আমাদের অঙ্গীকার’ স্লোগানকে সামনে রেখে যাত্রা শুরু করা দলটির মূলনীতি গণতন্ত্র, ন্যায়বিচার, অধিকার ও জাতীয় স্বার্থ।



সাতদিনের সেরা