kalerkantho

শনিবার । ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ৪ ডিসেম্বর ২০২১। ২৮ রবিউস সানি ১৪৪৩

ধর্মীয় উগ্রবাদ সৃষ্টি করে উন্নয়ন ব্যাহত করার অপচেষ্টা : এলজিআরডি মন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক   

১৭ অক্টোবর, ২০২১ ১৭:২৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ধর্মীয় উগ্রবাদ সৃষ্টি করে উন্নয়ন ব্যাহত করার অপচেষ্টা : এলজিআরডি মন্ত্রী

স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম বলেছেন, ‌'পদ্মা সেতু, কর্ণফুলী টানেল, রূপপুর পারমাণবিক কেন্দ্র, মেট্রো রেলসহ অনেক মেগাপ্রকল্প বাস্তবায়িত হচ্ছে, যা বিশ্বদরবারে বাংলাদেশের সুনাম ও চমক সৃষ্টি হয়েছে। এসব উন্নয়ন তাদের সহ্য হয় না বলে নানা কৌশল অবলম্বন করছে। ধর্মীয় উগ্রবাদ সৃষ্টি করে দেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রাকে ব্যাহত এবং বিশ্বে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি নষ্ট করার অপচেষ্টা চলছে। তিনি আজ রবিবার রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তন প্রাঙ্গণে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর আয়োজিত 'বিশ্ব হাত ধোয়া দিবস-২০২১ উদযাপন' অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা জানান।

মন্ত্রী বলেন, হিন্দু-মুসলিম-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান, মন্ত্রী, আমলা কৃষক-শ্রমিকসহ সব শ্রেণি-পেশার মানুষ সবাই এ দেশের সন্তান। সবাই মিলে সৌহার্দ্য-সম্প্রীতি নিয়ে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নপূরণ করতে হবে। বাংলাদেশে সব ধর্মের মানুষ স্বাধীনভাবে কোনো বাধাবিঘ্ন ছাড়াই নিজের ধর্ম পালন করছে। অন্য ধর্মকে সম্মান ও মর্যাদা করার শিক্ষা ইসলামসহ সব ধর্মেই রয়েছে। কিন্তু একটি গোষ্ঠী ধর্মকে ব্যবহার করে দেশে অরাজকতা সৃষ্টির চেষ্টা করছে।

তিনি আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সরকার গঠন করার পরই দেশের উন্নয়ন শুরু হয়। কিন্তু পরবর্তী নির্বাচনে ক্ষমতায় না আসায় দেশে উন্নয়নের ধারা স্থবির হয়ে পড়ে। এরপর পুনরায় শেখ হাসিনা ক্ষমতায় এসে দেশকে নতুন এক উচ্চতায় নিয়ে গেছেন। এখন লক্ষ্যমাত্রা একটাই- ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত-সমৃদ্ধ বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা বিনির্মাণ করা।

স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব হেলালুদ্দীন আহমদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশে সুইজারল্যান্ডের রাষ্ট্রদূত নাথালি চুয়ার্ড এবং ইউনিসেফের বাংলাদেশ প্রতিনিধি ভিরা মেন্ডোনকা। জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী মো. সাইফুর রহমান স্বাগত বক্তব্য দেন। উল্লেখ্য, এ বছর দিবসটির প্রতিপাদ্য- ‘Our Future is at Hand, Lets Move Forward Together’.



সাতদিনের সেরা