kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১২ কার্তিক ১৪২৮। ২৮ অক্টোবর ২০২১। ২০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

মহালয়া উপলক্ষে অসহায় মানুষের মাঝে বস্ত্র বিতরণ

সম্প্রীতির বন্ধনে দেশকে এগিয়ে নেওয়ার আহবান খাদ্যমন্ত্রীর

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৬ অক্টোবর, ২০২১ ১৫:৩০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সম্প্রীতির বন্ধনে দেশকে এগিয়ে নেওয়ার আহবান খাদ্যমন্ত্রীর

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অসাম্প্রদায়িক চেতনাকে ধারণ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সম্প্রীতির বন্ধনে দেশকে এগিয়ে নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার। তিনি বলেছেন, আমরা সবার মাঝে শান্তি ও সম্প্রীতি আনতে চাই। সম্প্রীতির বন্ধনে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে চাই।

আজ বুধবার সকালে রাজধানীর স্বামীবাগস্থ শ্রী শ্রী লোকনাথ ব্রক্ষচারী আশ্রম ও মন্দির প্রাঙ্গণে অসহায় মানুষের মাঝে বস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন তিনি। শ্রী শ্রী লোকনাথ ব্রক্ষচারী আশ্রম ও মন্দির পরিচালনা পরিষদের সভাপতি ও সংসদ সদস্য পংকজ দেবনাথের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে পরিচালনা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক বিষ্ণু পদ ভৌমিক, সদস্য মৃত্যুঞ্জয় দাস ও রবিন মুখার্জী এবং প্রধান পুরোহিত অজিত চক্রবর্তী উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে মন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধুর অসাম্প্রদায়িক চেতনাকে ধারণ করে আমি রাজনীতি করি। আমার গ্রামের বাড়িতে ১৯৬০ সালে দূর্গামন্দির স্থাপিত হয়। এখন সেখানে মন্দির কমপ্লেক্স তৈরি করেছি। সেখানে শিব মন্দির, দূর্গা মন্দির, বাবা লোকনাথের মন্দির ও বিষ্ণু মন্দির রয়েছে। মন্দিরের অপর পাশে মসজিদ তৈরি করেছি। যা অসাম্প্রদায়িক চেতনা বা সম্প্রীতির উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত।

মহালয়ার প্রকৃত চেতনা সবার মাঝে ছড়িয়ে দেওয়ার আহবান জানিয়ে সাধন চন্দ্র মজুমদার বলেন, বাবা লোকনাথ হিন্দু মুসলিম, বৌদ্ধ, খিষ্ট্রান নয় বরং মানুষের সেবা করার কথা বলেছেন। তাই অপরের সেবার মাধ্যমে বাবা লোকনাথের আদর্শ মানুষের মাঝে ছড়িয়ে দিতে হবে।

মন্ত্রী বলেন, করোনাকালে দেশের মানুষের খাদ্য সংকট হয়নি। কেউ বাজারে গিয়ে চাল কিনতে পারেনি এমন ঘটনা ঘটেনি। বিরোধীদল অপপ্রচার চালিয়েছিলো করোনায় খাদ্য ঘাটতি দেখা দেবে, লাখ লাখ মানুষ মারা যাবে। শেখ হাসিনার দক্ষ নেতৃত্বে সফলভাবে করোনা মোকাবিলা করা হয়েছে, কেউ খাদ্যাভাবে মারা যায়নি। প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে দেশ সমৃদ্ধির পথে এগিয়ে যাচ্ছে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

পরে খাদ্যমন্ত্রী অসহায় মানুষের মাঝে বস্ত্র বিতরণ করেন। এর আগে তিনি বাবা লোকনাথ মন্দিরে পূজার অর্ঘ্য অর্পণ করেন।



সাতদিনের সেরা