kalerkantho

বুধবার । ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ১ ডিসেম্বর ২০২১। ২৫ রবিউস সানি ১৪৪৩

গেটস ফাউন্ডেশন

বাংলাদেশি ফাইরুজ এবার গোলকিপারস অ্যাওয়ার্ড পেলেন

কূটনৈতিক প্রতিবেদক    

২২ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ০৪:১২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বাংলাদেশি ফাইরুজ এবার গোলকিপারস অ্যাওয়ার্ড পেলেন

‘গোলকিপারস গ্লোবাল গোল চেঞ্জমেকার অ্যাওয়ার্ড-২০২১’ পেয়েছেন বাংলাদেশি তরুণী ফাইরুজ ফাইজা বিথার। তিনি ‘মনের স্কুল’ নামের একটি প্রতিষ্ঠানের সহপ্রতিষ্ঠাতা। অনলাইনে মানসিক স্বাস্থ্য সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধিতে কাজ করে ‘মনের স্কুল’। মানসিক স্বাস্থ্য নিয়ে কাজ করার স্বীকৃতি হিসেবে গোলকিপারস অ্যাওয়ার্ড পেয়েছেন ফাইরুজ। বিল অ্যান্ড মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশন এই পুরস্কার দিয়েছে। জাতিসংঘের টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) অর্জনে সহায়তার পদক্ষেপ নিচ্ছে, এমন ব্যক্তিদের পুরস্কার দেয় বিল অ্যান্ড মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশন।

গত সপ্তাহে বিল অ্যান্ড মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশনের পঞ্চবার্ষিক গোলকিপারস প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে। এরই ধারাবাহিকতায় গোলকিপারস গ্লোবাল অ্যাওয়ার্ড বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করা হয়েছে। ফাইরুজ ফাইজা বিথার ছাড়াও আরো তিনজন এ বছর তিনটি ক্যাটাগরিতে পুরস্কার পেয়েছেন। তাঁরা হলেন ইউএন উইম্যানের সাবেক আন্ডার সেক্রেটারি জেনারেল এবং নির্বাহী পরিচালক ফুমজিলে মলাম্বো নকুকা, কলম্বিয়ার জেনিফার কলপাস ও লাইবেরিয়ার সাট্টা শেরিফ।

বাংলাদেশের ফাইরুজ ফাইজা বিথারের সম্পর্কে বিল অ্যান্ড মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশন গোলকিপারস জানায়, সমাজে পরিবর্তন আনার অনুপ্রেরণায় ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতা দিয়ে এবং নেতৃত্বের জায়গায় থেকে সুস্বাস্থ্য ও মানুষের ভালো থাকার জন্য নিরলস কাজ করে যাচ্ছেন ‘২০২১ চেঞ্জমেকার অ্যাওয়ার্ড’ পাওয়া বাংলাদেশের ফাইরুজ ফাইজা বিথার। এই কাজের স্বীকৃতি হিসেবে তাঁকে ‘গোলকিপারস গ্লোবাল গোল চেঞ্জমেকার অ্যাওয়ার্ড-২০২১’ সম্মানে ভূষিত করা হয়েছে।

বিল অ্যান্ড মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশনের কো-চেয়ার বিল গেটস বলেন, ‘বিশ্বের সর্বত্র চলমান বৈষম্য কভিড-১৯ পরিস্থিতিকে আরো খারাপ করে তুলেছে। তবে এ প্রতিকূলতার মধ্যেও যে এগিয়ে যাওয়া সম্ভব, এ চার মহিয়সী নারী তা করে দেখিয়েছেন।’

বিল অ্যান্ড মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশনের সিইও মার্ক স্যুজম্যান বলেন, ‘নারীরা যে উদ্ভাবনী উপায়ে আমাদের সমাজ এবং দেশগুলোর পুনর্গঠনে নেতৃত্ব দিচ্ছেন, এ পুরস্কারের বিজয়ীরা তার জ্বলন্ত উদাহরণ। তাঁদের কাজ আমাদের জন্য অনুপ্রেরণা।’



সাতদিনের সেরা