kalerkantho

শনিবার । ৩১ আশ্বিন ১৪২৮। ১৬ অক্টোবর ২০২১। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

এসিড নিক্ষেপে ঘটনা বাড়ায় মহিলা পরিষদের উদ্বেগ

প্রবাসফেরত নারীকে এসিড নিক্ষেপের শাস্তি দাবি

অনলাইন ডেস্ক   

১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ১৭:১৪ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



এসিড নিক্ষেপে ঘটনা বাড়ায় মহিলা পরিষদের উদ্বেগ

নওগাঁ জেলার রাণীনগর উপজেলার মিরাট ইউনিয়নের আতাইকুলা মধ্যপাড়া গ্রামে প্রবাস ফেরত এক গৃহবধূকে স্বামী ওসমান ও তার বড় স্ত্রী নারগিস পারভীন মিলে এসিড নিক্ষেপ করে মাথা, মুখমণ্ডল, হাত-পাসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে ঝলসে দেওয়ার ঘটনায় গভীর উদ্বেগ ও ক্ষোভ প্রকাশ করে ঘটনার সাথে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ বিবৃতি দিয়েছে।

বিবৃতিতে বলা হয়, গত ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ তারিখ বিভিন্ন দৈনিক সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদে জানা যায় যে- নওগাঁ জেলার রাণীনগর উপজেলার মিরাট ইউনিয়নের আতাইকুলা মধ্যপাড়া গ্রামে প্রবাস ফেরত এক গৃহবধূকে স্বামী ওসমান ও তার বড় স্ত্রী নারগিস পারভীন মিলে এসিড নিক্ষেপের ঘটনা ঘটেছে। জানা জানা যায়, রাণীনগর উপজেলার মিরাট ইউনিয়নের আতাইকুলা মধ্যপাড়া গ্রামের মজনু সরদারের মেয়ে সৌদি প্রবাসী পাতাশির সাথে গত প্রায় তিন বছর আগে আত্রাই উপজেলার আন্ধারকোটা গ্রামের করিম প্রামানিকের ছেলের সাথে বিয়ে হয়। কিছুদিন সংসার করার পর পাতাশি বেগম সৌদি আরবে চলে যায় এবং পাতাশি বেগম সৌদি আরবে থেকে তার স্বামী ওসমানের নামে বেশ কিছু টাকা পাঠায়।
কিছুদিন আগে পাতাশি বেগম সৌদি আরব থেকে ছুটি নিয়ে তার বাবার বাড়ি রাণীনগর উপজেলার আতাইকুলা গ্রামে আসে। গৃহবধূর দেশে আসার খবর পেয়ে গত ১৪.০৯.২০২১ তারিখ মঙ্গলবার বিকেলে স্বামী ওসমান ও তার বড় স্ত্রী নারগিস পরভীন আতাইকুলা গ্রামে পাতাশির বাবার বাড়িতে আসলে সেখানে তাদের মধ্যে ঝগড়া হয়। পুনরায় গত ১৬.০৯.২০২১ তারিখ বৃহস্পতিবার পূর্বপরিকল্পনা মোতাবেক ওসমান ও তার বড় স্ত্রী নারগিস পারভীন পাতাশির বাবার বাড়িতে আসে এবং সেখানে কথা-বার্তার এক পর্যায়ে নারগিস তার ভ্যানিটি ব্যাগ থেকে বোতল ভর্তি এসিড পাতাশির মাথা, মুখমন্ডল, হাত-পাসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে নিক্ষেপ করে। এসময় পাতাশির চিৎকারে প্রতিবেশিরা এগিয়ে আসলে এসিড নিক্ষেপে দুই শিশুসহ আরো তিনজন আহত হয়। গৃহবধুসহ আহতদের রাণীনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হলে তাদের উন্নত চিকিৎসার জন্য নওগাঁ সদর হাসপাতালে প্রেরণ করেন- বলা হয় বিবৃতিতে।

বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ গৃহবধূকে এসিড নিক্ষেপ করে মাথা, মুখমন্ডল, হাত-পাসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে ঝলসে দেওয়ার ঘটনায় গভীর উদ্বেগ ও ক্ষোভ প্রকাশ করছে। ঘটনার সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ তদন্ত সাপেক্ষে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানাচ্ছে। নির্যাতনের শিকার গৃহবধুসহ আহতদের সুচিকিৎসা ও নিরাপত্তার নিশ্চিতকরণের দাবি জানাচ্ছে।

বিবৃতিতে বলা হয়, আমরা লক্ষ্য করছি যে, এসিড নিক্ষেপের ঘটনা কিছুদিন কম থাকলেও বর্তমানে এসিড নিক্ষেপের ঘটনা বৃদ্ধি পাচ্ছে। এসিড নিক্ষেপে ঘটনা বৃদ্ধি পাওয়ায় বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ উদ্বেগ প্রকাশ করছে। সেইসাথে এসিডজাতীয় দ্রব্যের অপব্যবহার রোধে এসিড নিয়ন্ত্রণ আইন, ২০০২ এর যথাযথ বাস্তবায়নের দাবি জানাচ্ছে।



সাতদিনের সেরা