kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ৩০ নভেম্বর ২০২১। ২৪ রবিউস সানি ১৪৪৩

টাইমস হায়ার এডুকেশনের সাথে ইউজিসির দ্বিপাক্ষিক সভা

যোগ্যতা থাকতেও বাংলাদেশের বিশ্ববিদ্যালয় বিশ্ব র‌্যাংকিং এ স্থান পাচ্ছে না

অনলাইন ডেস্ক   

৩১ আগস্ট, ২০২১ ২০:০২ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



যোগ্যতা থাকতেও বাংলাদেশের বিশ্ববিদ্যালয় বিশ্ব র‌্যাংকিং এ স্থান পাচ্ছে না

ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটি র‌্যাংকিং-এ বাংলাদেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলো স্থান করে নিতে করণীয় বিষয় নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ও গবেষকদের জন্য একাধিক সচেতনতামূলক কর্মশালা ও প্রশিক্ষণ আয়োজন করবে বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন (ইউজিসি) ও টাইমস হায়ার এডুকেশন (টএইচই)।

আজ মঙ্গলবার ভার্চুয়াল প্লাটফর্মে আয়োজিত দ্বি-পাক্ষিক সভায় (ইউজিসি) টাইমস হায়ার এডুকেশন এ সিদ্ধান্ত নেয়।

ইউজিসি সদস্য অধ্যাপক ড. বিশ্বজিৎ চন্দ-এর সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য রাখেন কমিশনের সদস্য ড. দিল আফরোজা বেগম, অধ্যাপক ড. মো. সাজ্জাদ হোসেন এবং অধ্যাপক ড. মো. আবু তাহের। স্ট্র্যাটেজিক প্ল্যানিং অ্যান্ড কোয়ালিটি এসিউরেন্স (এসপিকিউএ) বিভাগের পরিচালক ড. মো. ফখরুল ইসলাম সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন। টাইমস হায়ার এডুকেশন (টএইচই) এর পক্ষ থেকে ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটি র‌্যাংকিং এর বিভিন্ন বিষয় নিয়ে বক্তব্য তুলে ধরেন প্রতিষ্ঠানটির দক্ষিণ এশিয়ার আঞ্চলিক পরিচালক রিতিন মালহোত্রা। সভাটি সঞ্চালনা করেন এসপিকিউএ বিভাগের অতিরিক্ত পরিচালক জেসমিন পারভীন।

সভা প্রধানের বক্তব্যে অধ্যাপক ড. বিশ্বজিৎ চন্দ বলেন, বাংলাদেশের অনেকগুলো বিশ্ববিদ্যালয়ের উল্লেখ করার মতো অনেক সাফল্য রয়েছে। কিন্তু ওয়ার্ল্ড র‌্যাংকিং-এ স্থান পেতে এসব অর্জনসহ যে সকল তথ্য আবশ্যিকভাবে প্রদান করতে হয় সে সম্পর্কে যথেষ্ট ধারণা না থাকায় যোগ্যতা থাকা সত্ত্বেও বাংলাদেশের বিশ্বাবদ্যালয়গুলো ওয়ার্ল্ড র‌্যাংকিং-এ স্থান পাচ্ছে না। এজন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের বিষয়গুলো সম্পর্কে অবহিত করতে হবে। ইউজিসি এক্ষেত্রে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের জন্য একাধিক অবহিতকরণ কর্মশালা ও প্রশিক্ষণ আয়োজন করবে। এ ছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের মধ্য থেকে একদল মাস্টার ট্রেইনার তৈরি করা হবে, যারা পর্যায়ক্রমে বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল শিক্ষককে প্রশিক্ষণের আওতায় আনতে পারবে।

তিনি আশা প্রকাশ করেন, বাংলাদেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে ওয়ার্ল্ড র‌্যাংকিং-এর বিভিন্ন শর্ত ও প্যারামিটার সম্পর্কে অবহিত করা গেলে বৈশ্বিক বিশ্ববিদ্যালয় র‌্যাংকিং এ বাংলাদেশ স্থান করে নিতে সক্ষম হবে। তিনি এ বিষেয়ে একটি কর্মপরিকল্পনা তৈরি করতে সংশ্লিষ্ট বিভাগের কর্মকর্তাদের নির্দেশনা প্রদান করেন।

অধ্যাপক ড. মো. সাজ্জাদ হোসেন বলেন, বাংলাদেশ ১৯৭১ সালে স্বাধীনতা অর্জন করেছে এবং একই সময়ে টাইমস হায়ার এডুকেশন (টএইচই) যাত্রা শুরু করেছে। তিনি বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী ও টাইমস হায়ার এডুকেশন (টএইচই) এর ৫০ বছর পূর্তির সময়কে স্মরণীয় করে রাখতে ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে বাংলাদেশের উচ্চশিক্ষাকে এগিয়ে নিতে যৌথভাবে একাধিক সেমিনার ও কর্মশালা আয়োজনের প্রস্তাব করেন।

অধ্যাপক ড. মো. আবু তাহের তার বক্তব্যে গবেষণাপত্রের উদ্ধৃতি ও তথ্যের গুণগতমান বজায় রাখতে টাইমস হায়ার এডুকেশন এর অভিজ্ঞতা বাংলাদেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে প্রয়োগ করার উপর গুরুত্বারোপ করেন।

ড. মো. ফখরুল ইসলাম তার স্বাগত বক্তব্যে দক্ষিণ এশিয়াসহ বিশ্বের উন্নত রাষ্ট্রের বিশ্ববিদ্যালয়সমূহ বিশ্ব র‌্যাংকিং এ নিজেদের অবস্থান সুদৃঢ় করতে যেসকল কর্মপদ্ধতি গ্রহণ ও বাস্তবায়ন করে থাকে, সেসব অভিজ্ঞতা বাংলাদেশের উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে প্রয়োগ করার উপর জোর দেন। একইসাথে তিনি স্বল্প, মধ্য ও দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা প্রণয়নের বিষয়ে টাইমস হায়ার এডুকেশন এর কারিগরি সহযোগিতা ও পরামর্শ প্রত্যাশা করেন। 



সাতদিনের সেরা