kalerkantho

বুধবার । ১৪ আশ্বিন ১৪২৮। ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১। ২১ সফর ১৪৪৩

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ

গণটিকা সুষ্ঠু করতে সহায়তায় থাকবে আ. লীগ

তৈমুর ফারুক তুষার   

৫ আগস্ট, ২০২১ ০৩:০৬ | পড়া যাবে ৫ মিনিটে



গণটিকা সুষ্ঠু করতে সহায়তায় থাকবে আ. লীগ

আগামী ৭ থেকে ১৪ আগস্ট দেশের প্রতিটি ওয়ার্ডে কভিড-১৯ ভাইরাসের গণটিকা প্রদান কার্যক্রম পরিচালিত হবে। সরকারের এ টিকা প্রদান কাজে সহায়তা করতে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের নির্দেশ দিয়েছেন দলটির সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। নির্দেশ অনুযায়ী দলটির নেতাকর্মীরা গণটিকা কার্যক্রমে মূলত তিন ধরনের সহায়তা করবেন। এরই মধ্যে কেন্দ্র থেকে তৃণমূলের নেতাদের মোবাইলে এসএমএসের মাধ্যমে এ নির্দেশনা পাঠানো হয়েছে। গতকাল বুধবার আওয়ামী লীগের সম্পাদকমণ্ডলীর এক সভা থেকেও গণটিকা কার্যক্রমে সহায়তা করতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ তৃণমূলের নেতাদের বাস্তবায়নের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির বেশ কয়েকজন গুরুত্বপূর্ণ নেতা কালের কণ্ঠকে এ তথ্য জানিয়েছেন।

আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতারা জানান, প্রথমত, নেতাকর্মীরা নিজেরা টিকা নেবেন। দ্বিতীয়ত, জনগণকে টিকা নিতে উৎসাহ দেবেন। তৃতীয়ত, টিকা প্রদান কার্যক্রমে সহায়তা করবেন। টিকাকেন্দ্রের অবস্থান ও সময় জানানো, স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করার কাজে সহযোগিতার মধ্য দিয়ে টিকা কার্যক্রমে সহায়তা করবেন আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা।

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য বেগম মতিয়া চৌধুরী কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘গণটিকা কার্যক্রমে সহায়তাকে আমরা প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ হিসেবে নিয়েছি। এই টিকা জনগণের ট্যাক্সের টাকায় কেনা। টিকার যেন ফ্রিস্টাইল যেনতেনভাবে অপচয় না হয় সেদিকে আমরা নজর রাখব। আওয়ামী লীগ গণমানুষের দল। মানুষের যেকোনো দুর্যোগে, বিপদে আমরা সব সময় পাশে থাকি। বঙ্গবন্ধুর শিক্ষা হলো আর্তমানবতার সেবা করা। ইউনিয়নগুলোতে টিকা কিভাবে প্রদান হচ্ছে, সেদিকে খেয়াল রাখতে নেতাকর্মীদের প্রতি নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। যেহেতু আওয়ামী লীগ এখন রাষ্ট্রক্ষমতায়, সে জন্য আমাদের দায়িত্বও বেশি।’

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘গণটিকা কার্যক্রম সফল করতে আওয়ামী লীগ ও এর অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীদের দলের সভাপতি শেখ হাসিনা নির্দেশ দিয়েছেন। দলের সব পর্যায়ের নেতাকর্মী টিকা গ্রহণ করবেন। পাশাপাশি সবাইকে টিকা গ্রহণে উদ্বুদ্ধ করতে প্রচারণা চালাবেন।’ তিনি গতকাল বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে দলীয় কার্যালয়ে আওয়ামী লীগের সম্পাদকমণ্ডলীর সঙ্গে ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগ এবং সহযোগী ও ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠনের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকদের বিশেষ সভার সূচনা বক্তব্যে এ কথা জানান।

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘টিকা কার্যক্রম নিয়ে সমালোচনা করার জন্য অনেকে বসে থাকে। আমরা তাদের সুযোগ দিতে চাই না। আমরা চাই না এমন কোনো পরিবেশ তৈরি হোক, যা নিয়ে সুযোগসন্ধানীরা সমালোচনার সুযোগ পায়। সে জন্য আমাদের নেতাকর্মীরা গণটিকা কার্যক্রমে সহযোগিতা করবেন, যেন টিকা কার্যক্রম নির্বিঘ্ন ও সুন্দর হয়।’

আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এবং জাতীয় সংসদের হুইপ আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী টিকা কার্যক্রমে সহায়তার জন্য দলের নেতাকর্মীদের প্রতি নির্দেশনা দিয়েছেন। নেতাকর্মীরা মূলত জনগণকে টিকা গ্রহণে উদ্বুদ্ধকরণ, নিকটস্থ টিকাকেন্দ্র ও সময়সূচি জানানোর কাজ করবেন। একই সঙ্গে নেতাকর্মীরা টিকাকেন্দ্রে সামাজিক দূরত্ব তথা স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিতকরণ, টিকাকেন্দ্রে অনুকূল পরিবেশ নিশ্চিত করার কাজে কার্যকর ভূমিকা পালন করবেন।’

আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক এবং প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী বিপ্লব বড়ুয়া কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘আমরা গত ১ আগস্ট ধানমণ্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয় থেকে সারা দেশে আওয়ামী লীগের তৃণমূলের নেতাদের মোবাইলে খুদে বার্তা পাঠিয়েছি। এই বার্তায় নেতাকর্মীদের নিজে টিকা নেওয়া, জনগণকে টিকা নিতে উদ্বুদ্ধ করা এবং যাঁরা টিকা গ্রহণ করবেন তাঁদের সহায়তার জন্য বলা হয়েছে। দলের সবাই যেন টিকা নেন এবং টিকা কার্যক্রমে সহায়তা করেন, সে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।’

আওয়ামী লীগের সূত্রগুলো জানায়, গণটিকা কার্যক্রম নিয়ে কোনো অব্যবস্থাপনা দেখতে চান না প্রধানমন্ত্রী। সামান্যতম কোনো সমস্যা দেখা দিলেই তা নিয়ে সরকারবিরোধীরা সমালোচনায় মুখর হতে পারে। সে জন্য গণটিকা কার্যক্রম নিয়ে খুবই সতর্ক থাকতে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের নির্দেশনা দেওয়া হচ্ছে।

আওয়ামী লীগের সম্পাদকমণ্ডলীর সভা অনুষ্ঠিত : জনগণকে টিকা গ্রহণে উদ্বুদ্ধ করতে প্রচারণা সফল এবং শোকাবহ আগস্টে দলীয় কর্মসূচি সমন্বয়ে গতকাল সকালে আওয়ামী লীগের সম্পাদকমণ্ডলী এবং ঢাকা মহানগর উত্তর, দক্ষিণ ও সহযোগী সংগঠনগুলোর মধ্যে এক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। সভায় উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য বেগম মতিয়া চৌধুরী, ড. আব্দুর রাজ্জাক ও আবদুর রহমান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল-আলম হানিফ, ড. হাছান মাহমুদ, আ ফ ম বাহাউদ্দীন নাছিম প্রমুখ।

সভায় আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতারা প্রতিটি ওয়ার্ডে টিকা কার্যক্রমে সহযোগিতার জন্য দলীয় নেতাকর্মীদের নির্দেশনা দেন।

সভায় উপস্থিত একটি সূত্র জানায়, আনুষ্ঠানিক সভা শুরুর আগে ভুঁইফোড় সংগঠনগুলোর কর্মকাণ্ড নিয়ে আলোচনা করেন কেন্দ্রীয় নেতারা। এ সময় সভায় উপস্থিত একজন মন্ত্রীর বিরুদ্ধে ভুঁইফোড় সংগঠনকে পৃষ্ঠপোষকতা দেওয়ায় ক্ষোভ ঝাড়েন সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য মৃণাল কান্তি দাস। বিভিন্ন সময়ে ওই মন্ত্রীকে ভুঁইফোড় সংগঠনের অনুষ্ঠানে দেখা যেত বলেও অভিযোগ করেন মৃণাল কান্তি।



সাতদিনের সেরা