kalerkantho

শুক্রবার । ২ আশ্বিন ১৪২৮। ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১। ৯ সফর ১৪৪৩

মৃত্যু কিছুটা কমলেও বেড়েছে শনাক্তের হার

মৃত্যু ২১২ শনাক্ত ১৩৮৬২

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৩১ জুলাই, ২০২১ ০৩:১৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মৃত্যু কিছুটা কমলেও বেড়েছে শনাক্তের হার

পাঁচ দিন পর দেশে করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা কিছুটা কমলেও তা এখনো রয়ে গেছে ২০০ জনের ওপরেই। গতকাল শুক্রবার সকাল ৮টা পর্যন্ত পূর্ববর্তী ২৪ ঘণ্টার হিসাবে মারা গেছে ২১২ জন, যা গত পাঁচ দিনের মধ্যে সর্বনিম্ন। গত ২৭ জুলাই দেশে এক দিনের হিসাবে সর্বোচ্চ ২৫৮ জনের মৃত্যু রেকর্ড করা হয়।

এদিকে মৃত্যুর সঙ্গে সঙ্গে গতকাল কিছুটা কমেছে শনাক্তও। গতকাল পূর্ববর্তী ২৪ ঘণ্টায় ৪৫ হাজার ৪৪ জনের নমুনা পরীক্ষায় ১৩ হাজার ৮৬২ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়েছে। আর ওই ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত হার বেড়ে হয়েছে ৩০.৭৭ শতাংশ। এর আগে ৫২ হাজার ২৮২ জনের নমুনা পরীক্ষায় ১৫ হাজার ৯৮২ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছিল এবং শনাক্তের হার ছিল ২৯.২১ শতাংশ। গত দিনের চেয়ে শনাক্তের হার ১.৫৬ শতাংশ বেশি। তা ছাড়া মাঝে প্রতিদিনই শনাক্ত ছিল ১৪ হাজারের ওপরে। এমনকি ২৮ জুলাই দেশে সর্বোচ্চ ১৬ হাজার ২৩০ জনের শনাক্ত রেকর্ড করে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছে ১৩ হাজার ৯৭৫ জন, যা আগের তুলনায় বেশি। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের প্রেস বিজ্ঞপ্তি অনুসারে এসব তথ্য জানা গেছে।

এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ২১২ জনের মধ্যে ১১৯ জন পুরুষ ও ৯৩ জন নারী। যাদের মধ্যে সর্বোচ্চ ৬৫ জন মারা গেছে ঢাকা বিভাগে। ৫৩ জন চট্টগ্রাম বিভাগে, ৩৬ জন খুলনা বিভাগে, ১৩ জন রাজশাহী বিভাগে, ১৭ জন সিলেট বিভাগে, ১১ জন বরিশাল বিভাগে, ৯ জন রংপুর বিভাগে এবং আটজন ময়মনসিংহ বিভাগে। যাদের বয়স ১১-২০ বছরের একজন, ২১-৩০ বছরের পাঁচজন, ৩১-৪০ বছরের ১৫ জন, ৪১-৫০ বছরের ২৫ জন, ৫১-৬০ বছরের ৪৮ জন, ৬১-৭০ বছরের সর্বোচ্চ ৬৯ জন, ৭১-৮০ বছরের ৩২ জন, ৮১-৯০ বছরের ১১ জন ও ৯১-১০০ বছরের ছয়জন।

এদিকে সংক্রমণের দাপটেও এলাকায় এলাকায় ঘটছে পরিবর্তন। গতকাল স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের দেওয়া হিসাব অনুসারে সর্বোচ্চ শনাক্ত হার ছিল সিলেটে ৪৩ শতাংশ। এরপরই ৩৯ শতাংশ বরিশালে, ৩৭ শতাংশ চট্টগ্রামে, ২৮ শতাংশ খুলনায় , ২৭ শতাংশ করে ঢাকা ও ময়মনসিংহে, ২৬ শতাংশ রংপুরে এবং ২৪ শতাংশ রাজশাহীতে।



সাতদিনের সেরা