kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২১ শ্রাবণ ১৪২৮। ৫ আগস্ট ২০২১। ২৫ জিলহজ ১৪৪২

নিম্ন আদালত থেকে ১০৭ কার্যদিবসে দেড় লাখ বন্দি জামিনে মুক্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৯ জুলাই, ২০২১ ২০:৩৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নিম্ন আদালত থেকে ১০৭ কার্যদিবসে দেড় লাখ বন্দি জামিনে মুক্ত

ফাইল ফটো

করোনা সংক্রমনের প্রেক্ষাপটে স্বাভাবিক বিচার কাজ বন্ধ থাকায় আদালতে সরাসরি উপস্থিতি ছাড়াই বন্দিদের কারাগারে রেখেই ভার্চুয়ালি শুনানির মাধ্যমে নিম্ন আদালত থেকে এ পর্যন্ত দেড়লাখের বেশি বন্দিকে জামিনে মুক্তি দেওয়া হয়েছে। মুক্তিপ্রাপ্তরা সকলেই কয়েদি। তাদের এখনও কোনো মামলায় সাজা হয়নি। সুপ্রিম কোর্টের বিশেষ কর্মকর্তা মোহাম্মদ সাইফুর রহমান সূত্রে সোমবার এ তথ্য পাওয়া গেছে।

প্রাপ্ত তথ্যানুযায়ী, গতবছর দেশে প্রথমদফা করোনার থাবার সময় আসামিদের কারাগারে রেখেই ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ভার্চুয়ালি জামিন শুনানি শুরু হয়। এই প্রক্রিয়ায় গতবছর ১১ মে থেকে ৪ আগস্ট পর্যন্ত ৫৮ কার্যদিবসে ১,৪৭৩৩৯টি জামিন আবেদনের ওপর শুনানি শেষে ৭২২২৯ জনকে জামিন দেওয়া হয়। এরপর দ্বিতীয়দফা করোনার ছোবল পড়লে একই প্রক্রিয়ায় গত ১২ এপ্রিল থেকে নিম্ন আদালতে জামিন শুনানি শুরু হয়। এরপর থেকে গত ১৭ জুন পর্যন্ত মোট ৪৬ কার্যদিবসে নিম্ন আদালতে জামিন আবেদনের ওপর শুনানি হয়। এ সময় পর্যন্ত মোট এক লাখ ৩৭ হাজার ৩৩০টি জামিন আবেদনের ওপর শুনানি শেষে তা নিষ্পত্তি করা হয়। এসব জামিন আবেদনে মোট ৬৯ হাজার ৬৫৫ জনের জামিন মঞ্জুর করা হয়। দেশে তৃতীয়দফা লকডাউন শুরু হয়েছে। একারণে গত ১৫ জুলাই থেকে আগের মতোই ভার্চুয়ালি জামিন শুনানি চলছে নিম্ন আদালতে। এ প্রক্রিয়ায় গত ১৫ জুলাই থেকে ১৯ জুলাই পর্যন্ত তিন কার্যদিবসে ১৩১৭০টি জামিন আবেদন নিষ্পত্তি করে ৮২৯১ জনকে জামিন দেওয়া হয়েছে।

করোনা সংক্রমন বেড়ে যাওয়ার প্রেক্ষাপটে প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নির্দেশে আসামিদের কারাগারে রেখেই ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ভার্চুয়ালি জামিন ও রিমান্ড শুনানি করতে দেশের সকল অধস্তন আদালত ও ট্রাইব্যুনালের বিচারকদের প্রতি নির্দেশ দেওয়া হয়। এ নির্দেশের পর ভার্চুয়ালি জামিন আবেদনের শুনানি শুরু হয়েছে।



সাতদিনের সেরা