kalerkantho

বুধবার । ২০ শ্রাবণ ১৪২৮। ৪ আগস্ট ২০২১। ২৪ জিলহজ ১৪৪২

ভারতে পাচার হওয়া কিশোরীকে বেনাপোল দিয়ে হস্তান্তর

বেনাপোল প্রতিনিধি   

২২ জুন, ২০২১ ০৪:২৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ভারতে পাচার হওয়া কিশোরীকে বেনাপোল দিয়ে হস্তান্তর

ভালো কাজের প্রলোভনে পড়ে দালালচক্রের মাধ্যমে ভারতে পাচারের শিকার সাগরিকা (২০) নামে এক কিশোরীকে দুই বছর পর বেনাপোল বন্দর দিয়ে বিশেষ ট্রাভেল পারমিটে ফেরত পাঠিয়েছে ভারতীয় পুলিশ। 

রবিবার (২০ জুন) বিকালে ভারতের পেট্রাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশ তাকে বেনাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে। ফেরত আসা কিশোরী নড়াইল জেলার লোহাগড়া থানার শ্রীভাষ কুমার বিশ্বাসের মেয়ে।

বেনাপোল চেকপোস্ট ইমিগ্রেশন পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আহসান হাবিব জানান, ইমিগ্রেশনে আনুষ্ঠানিকতা শেষে তাকে বেনাপোল পোর্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে। 

বেনাপোল পোর্ট থানার এস আই মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ফেরত আসা কিশোরীকে প্রাতিষ্ঠানিক ১৪ দিন কোয়ারেন্টিনে রাখা হবে। এরপর তাকে তার বাবা-মার কাছে হস্তান্তরের জন্য জাস্টিস এন্ড কেয়ার নামে বেসরকারি এনজিওর কাছে দেওয়া হবে।

জাস্টিস এন্ড কেয়ারের যশোর শাখার ফিল্ড অফিসার রোকেয়া খাতুন  জানান, ভালো কাজের প্রলোভনে দালাল চক্রের খপ্পরে পড়ে ওই কিশোরী সীমান্তের অবৈধ পথে ভারতে যায়। এসময় পাচারকারীরা তাকে ভালো কাজ না দিয়ে মুম্বাই শহরে ঝুঁকিপূর্ণ কাজে লাগায়।

খবর পেয়ে ভারতীয় পুলিশ অভিযান চালিয়ে তাকে উদ্ধার করে। পরে অবৈধ অনুপ্রবেশ আইনে মামলা দিয়ে আদালতে সোপর্দ করে। সেখান থেকে ভারতীয় একটি এনজিও সংস্থা তাকে ছাড়িয়ে নিজেদের হেফাজতে রাখে। এরপর ভারত সরকারের দেওয়া বিশেষ ট্রাভেল পারমিটে তাকে দেশে ফেরত পাঠানো হয়।



সাতদিনের সেরা