kalerkantho

শুক্রবার । ২২ শ্রাবণ ১৪২৮। ৬ আগস্ট ২০২১। ২৬ জিলহজ ১৪৪২

চারদিনে সাইকেলে করে তেঁতুলিয়া থেকে টেকনাফ

ফাতিমা তুজ জোহরা    

১৭ জুন, ২০২১ ২১:৫৮ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



চারদিনে সাইকেলে করে তেঁতুলিয়া থেকে টেকনাফ

করোনাকাল ভ্রমণ পিপাসুদের জন্য বিধিনিষেধ যেন একটু বাড়িয়ে দিয়েছে। চাইলেই বেরিয়ে পড়া যায় না দূর-দূরান্তে। তাই বলে কি হাত গুটিয়ে বসে থাকলে চলে? সম্বল সাইকেল আর দুটো পা। যতদূর মন চাই তেপান্তরের পথ-মাঠ ঘুরে আসা যায়। কিন্তু যতদূরটা কতদূর? সাইকেল চালিয়ে কি হাজার কিলোমিটার পাড়ি দেওয়া যায়? তিন বন্ধু শান্ত, আলিফ আর আকিক কাকডাকা ভোরে বেরিয়ে পড়েন এক স্বপ্নময় যাত্রায়। 

কালের কণ্ঠের সঙ্গে চার দিনের স্বপ্নময় অ্যাডভেঞ্চারের বর্ণনা করেছেন গ্রুপের আল-আমিন আকিক। তিনি বলেন, ক্রস কান্ট্রি রাইড যা প্রতিটা সাইক্লিস্টের জন্য স্বপ্নময় রাইড। যাত্রা শুরু করি গত বছরের ৭ ডিসেম্বর। তেঁতুলিয়ার বাংলাবান্ধা জিরো পয়েন্ট থেকে ভোর ৪টা ২৩ মিনিটে। আমরা তিন বন্ধু এক হাজার পাঁচ কিলোমিটার সাইক্লিং করি মাত্র চার দিনে (৪২ ঘণ্টায়)। ১৪টি জেলার ওপর দিয়ে সাইক্লিং করেছি। দেশের সবচেয়ে কম সময়ে এমটিভি সাইকেলে ক্রস কান্ট্রি রাইড এটি। রাইডের মূল স্লোগান ছিল 'দুর্নীতি মুক্ত বাংলাদেশ চাই'। এর বাইরে করোনা সচেতনতা, বাল্যবিবাহ, গাছ লাগান পরিবেশ বাঁচান- এগুলো নিয়ে ক্যাম্পিং ও লিফলেট বিতরণ করি।

প্রথম দিনে পঞ্চগড় বাংলাবান্ধা জিরো পয়েন্ট থেকে ঠাকুরগাঁও, দিনাজপুর, রংপুর, গাইবান্ধা, বগুড়া ভ্রমণ করেন তারা। এদিনে তারা মোট ৩২৫ কিলোমিটার সাইক্লিং করেন। প্রত্যেক জেলায় জেলায় পথে পথে দর্শনীয় স্পটগুলো ঘুরে দেখা, সেখান থেকে ইতিহাস ঐতিহ্য সম্পর্কে জ্ঞান অর্জন ছিল টিমের উদ্দেশ্য। তবে ছোট্ট একটা দুর্ঘটনার কবলেও পড়ে টিম।

ভ্রমণের দ্বিতীয় দিনে বগুড়া থেকে সিরাজগঞ্জ, টাঙ্গাইল পারি দিয়ে ঢাকা এসে থামে স্বপ্নযাত্রা। এদিনে সাইক্লিং করা হয় ২০৬ কিলোমিটার। সকাল ৮টায় বগুড়া থেকে যাত্রা শুরু করে সবকিছু মিলে ঢাকা পৌঁছতে বেজে যায় রাত ৯টা। তাই এই দিনের ভ্রমণ এখানেই শেষ।

পর দিনের সফর ঢাকা থেকে নারায়ণগঞ্জ, কুমিল্লা, ফেনী, চট্টগ্রাম। ভোর সাড়ে ৭টায় সাইক্লিং শুরু করে ২৪০ কিলোমিটার পারি দিয়ে রাত ৯টার দিকে চট্টগ্রাম সিটি গেইটে পৌঁছায় স্বপ্নযাত্রা টিম। তেঁতুলিয় টু টেকনাফ ক্রস কান্ট্রি রাইডে তৃতীয় দিনে শেষে মোট সাইক্লিং হয় ৭৬৬ কিলোমিটার। 

চতুর্থ দিনে চট্রগ্রাম থেকে কক্সবাজার হয়ে ২৩৩ কিলোমিটার সাইক্লিং করে মেরিন ড্রাইভ রাস্তা ধরে টেকনাফ। ঘড়ির কাটা তখন রাত ১১টা ৪৫ মিনিট। ততক্ষণে ঘুমে নিশ্চুপ পুরো টেকনাফ।

আল-আমিন আকিক বলেন, তখন আমরা তিন বন্ধু সামনে তাকিয়ে ছিলাম। চোখ যতদূর যায়। এ যেন অনেক বড় প্রপ্তি। মাত্র চারদিনে পেরিয়েছি মানচিত্রের দুই দিগন্ত।



সাতদিনের সেরা