kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৮ বৈশাখ ১৪২৮। ১১ মে ২০২১। ২৮ রমজান ১৪৪২

রাজশাহীর বাঘাতিতে

স্বর্ণ ব্যবসায়ী সাধন হত্যা মামলার আসামির হাইকোর্টে জামিন

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৮ এপ্রিল, ২০২১ ১৬:৪৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



স্বর্ণ ব্যবসায়ী সাধন হত্যা মামলার আসামির হাইকোর্টে জামিন

সাড়ে পাঁচ বছর আগে রাজশাহীর বাঘাতিতে সাধন চন্দ্র নামের এক স্বর্ণ ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় দায়ের করা মামলার আসামি মিজানুর রহমানকে এক বছরের জামিন দিয়েছেন হাইকোর্ট।

বিচারপতি জে বি এম হাসান ও বিচারপতি রাজিক-আল-জলিলের ভার্চুয়াল হাইকোর্ট বেঞ্চ আসামির জামিন মঞ্জুর করে আদেশ দেন। আদালতে জামিন আবেদনকারীপক্ষে আইনজীবী ছিলেন ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল ও অ্যাডভোকেট মো. আলামীন। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ব্যারিস্টার কাজী মাইনুল হাসান।

২০১৫ সালের ৩০ নভেম্বর সাধনের লাশ উদ্ধার করা হয় স্থানীয় রেললাইনের পার্শ্ব থেকে। এ ঘটনায় নিহতের ভাইয়ের দায়ের করা মামলায় পুলিশ প্রথমদফা তদন্ত শেষে কে বা কারা হত্যা করেছে তার কুলকিনারা না করতে পেরে ২০১৭ সালের ১৫ নভেম্বর ফাইনাল রিপোর্ট দাখিল করে। কিন্তু বাদীপক্ষ আদালতে নারাজির আবেদন করলে পুনরায় তদন্ত হয়। এরপর পুলিশ ২০১৯ সালে জামসেদ ও রিপন ফকিরসহ কয়েকজনকে গ্রেপ্তার করে। এর মধ্যে জামসেদ ও রিপন ফকির হত্যার কথা স্বীকার করে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জাবনবন্দী দেয়। যদিও এরইমধ্যে এই দুই আসামিসহ অপরাপর আসামিরা জামিনে মুক্তি পেয়েছে। আসামি রিপন ফকির তার জবানবন্দীতে হত্যাকান্ডের সময় আরেক আসামি মিজানুর রহমানের উপস্থিতির কথা উল্লেখ করে। এ অবস্থায় পুলিশ তদন্ত শেষে মিজানুর রহমান, জামসেদ, রিপনসহ বেশ কয়েকজনের বিরুদ্ধে ২০২০ সালের ৩১ অক্টোবর অভিযোগপত্র দাখিল করে। যদিও মিজানুর রহমানের নাম মামলার এজাহারে ছিল না। এ অবস্থায় জিানুর রহমান গত ৪ ফেব্রুয়ারি নিম্ন আদালতে আত্মসমর্পন করে। রাজশাহীর আদালত তাকে কারাগারে পাঠিয়ে দেয়। এরপর তিনি হাইকোর্টে জামিনের আবেদন করেন। হাইকোর্ট মিজানুর রহমানকে এক বছরের জামিন দেন এবং নিয়মিত জামিন প্রশ্নে রুল জারি করেন।



সাতদিনের সেরা