kalerkantho

বুধবার । ২৮ বৈশাখ ১৪২৮। ১১ মে ২০২১। ২৮ রমজান ১৪৪২

সারা দেশে দু’দিনে ভার্চুয়ালি ৪৮৪৪ জনের জামিন

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৩ এপ্রিল, ২০২১ ২১:৪৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সারা দেশে দু’দিনে ভার্চুয়ালি ৪৮৪৪ জনের জামিন

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ার পেক্ষাপটে সারা দেশে আদালতের স্বাভাবিক বিচার কাজ বন্ধ থাকলেও শুধুমাত্র জামিন আবেদন ও জরুরি ফৌজদারি বিষয় শুনানির জন্য ভার্চুয়ালি আদালত খোলা রাখা হয়েছে। এই প্রক্রিয়ায় মঙ্গলবার সারা দেশে ৩২৪০ জনকে জামিন দিয়েছে আদালত। এ জামিনের পর আজই তারা কারাগার থেকে মুক্তি পেয়েছেন বলে জানানো হয়েছে। এনিয়ে গত দু’দিনে ৪৮৪৪ জন জামিন নিয়ে কারামুক্ত হলেন। 

এবিষয়ে আজ সুপ্রিম কোর্টের বিশেষ কর্মকর্তা মোহাম্মদ সাইফুর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তার দেওয়া এক তথ্য বিবরণীতে বলা হয়েছে, ‘বিগত ১২ এপ্রিল  ২০২১ খ্রিস্টাব্দ তারিখ হতে করোনা সংক্রমণ রোধকল্পে পুনরায় দ্বিতীয় দফায় সারা দেশে অধঃস্তন আদালত এবং ট্রাইব্যুনালে শারীরিক উপস্থিতি ব্যাতিরেকে ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে জামিন এবং অতীব জরুরি ফৌজদারি দরখাস্ত শুনানি হচ্ছে। আজ ১৩ এপ্রিল ২০২১ খ্রি তারিখ সারা দেশে অধস্তন আদালতে ভার্চুয়াল শুনানিতে ৫১১০টি জামিন-দরখাস্ত নিষ্পত্তি হয় এবং ৩২৪০ জন হাজতী অভিযুক্ত ব্যক্তি জামিন প্রাপ্ত হয়ে কারাগার হতে মুক্ত হয়েছেন। বিগত দুই দিনে সারা দেশে অধঃস্তন আদালত এবং ট্রাইব্যুনালে ভার্চুয়াল শুনানির মাধ্যমে জামিনপ্রাপ্ত হয়ে মোট ৪৮৪৪ জন হাজতী অভিযুক্ত ব্যক্তি  কারাগার হতে মুক্ত হয়েছেন।’ 

করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ার প্রেক্ষাপটে গত ৫ এপ্রিল থেকে সারা দেশে নিম্ন আদালতে স্বাভাবিক বিচার কাজ বন্ধ ঘোষণা করে সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসন। এরই ধারাবাহিকতায় ১২ এপ্রিল পৃথক এক আদেশে এখন থেকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত আসামিদের কারাগারে রেখেই ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ভার্চুয়ালি জামিন ও রিমান্ড শুনানি করতে দেশের সকল অধস্তন আদালত ও ট্রাইব্যুনালের বিচারকদের প্রতি নির্দেশ দেওয়া হয়। 

এবিষয়ে প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নির্দেশে সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগের রেজিস্ট্রার মো. গোলাম রব্বানীর স্বাক্ষরে বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়। এ নির্দেশের পরপরই সোমবার থেকে ভার্চুয়ালি রিমান্ড ও জামিন শুনানি শুরু হয়েছে।



সাতদিনের সেরা