kalerkantho

মঙ্গলবার । ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮। ১৮ মে ২০২১। ৫ শাওয়াল ১৪৪

'স্বাস্থ্যবিধি তদারকি ও লার্ভার বিরুদ্ধে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালিত হবে'

অনলাইন ডেস্ক   

১৩ এপ্রিল, ২০২১ ১৯:৫৬ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



'স্বাস্থ্যবিধি তদারকি ও লার্ভার বিরুদ্ধে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালিত হবে'

সরকার ঘোষিত সর্বাত্মক লকডাউনে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ঢাদসিক) দুটি হাসপাতাল ও পাঁচটি নগর মাতৃসদন এ করোনা টিকাদান কার্যক্রমসহ অন্যান্য স্বাস্থ্যসেবা এবং করপোরেশনের অত্যাবশ্যকীয় সেবা কার্যক্রম চলমান থাকবে। এ ছাড়াও স্বাস্থ্যবিধি তদারকি এবং মশার লার্ভার বিরুদ্ধে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হবে বলে জানিয়েছেন ঢাদসিক মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস।

আজ মঙ্গলবার বিকেলে ঢাদসিক এর প্রধান কার্যালয় নগর ভবনের বুড়িগঙ্গা হলে করোনাভাইরাস বিস্তার রোধে সরকার ঘোষিত 'সর্বাত্মক লকডাউন' বাস্তবায়ন এবং করপোরেশনের জরুরি সেবা কার্যক্রম সংক্রান্ত এক সভায় তিনি এই কথা বলেন।

শেখ তাপস বলেন, করোনা মহামারীতে ঢাকাবাসীকে সেবা দেওয়ার জন্য আমাদের মহানগর জেনারেল হাসপাতাল প্রস্তুত রয়েছে। সেখানে করোনা পরীক্ষা করা হয় এবং তার সাথে সাথে করোনা টিকা প্রদান করা হয়। এ ছাড়া মহানগর শিশু হাসপাতালে করোনা টিকা প্রদান চলমান থাকবে। একইসাথে আমাদের যে পাঁচটি নগর মাতৃসদন রয়েছে সেখানেও টিকার প্রদান কার্যক্রম চলমান থাকবে। ঢাকাবাসীর প্রতি অনুরোধ করব, আপনাদের যার যখন বার্তা চলে আসবে, আপনারা সাথে সাথে টিকা গ্রহণ করবেন।

তিনি এ সময় করপোরেশন প্রদত্ত অন্যান্য স্বাস্থ্যসেবা কার্যক্রম চলমান থাকবে জানিয়ে বলেন, আমাদের স্বাস্থ্য সেবার মধ্যে যে কার্যক্রম রয়েছে, সেগুলো চলমান থাকবে। আমাদের নগর স্বাস্থ্য কেন্দ্র ও আঞ্চলিক স্বাস্থ্য কেন্দ্রগুলোর মাধ্যমে শিশুদের জন্য যে ইপিআই টিকা প্রদান করা হয়, সেগুলো চলমান থাকবে। মায়েদের জন্য যে স্বাস্থ্যসেবা প্রদান করা হয় তাও চলমান থাকবে।

এডিস মশার লার্ভা এবং লকডাউনে স্বাস্থ্যবিধি ও বিধিনিষেধ প্রয়োগে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হবে জানিয়ে তাপস বলেন, আমাদের আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তাগণ (আনিক) ও সম্পত্তি বিভাগের মাধ্যমে দশটি অঞ্চলে ডেঙ্গুর লার্ভা নিয়ন্ত্রণে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হবে। এই বিধিনিষেধগুলো (লকডাউনের বিধিনিষেধ) যাতে বাস্তবায়ন হয়, পরিপালন হয়, বাজারগুলো যাতে তিনটার মধ্যে বন্ধ হয়ে যায়, সকাল ৯টার আগে না খোলা- এগুলো সবকিছুই তারা (আনিক ও সম্পত্তি বিভাগ) তদারকি করবে, পরিচালিত করবে।

বৈঠকে অত্যাবশ্যকীয় কার্যক্রম-বর্জ্য ব্যবস্থাপনা, মশক নিয়ন্ত্রণ ও বিদ্যুৎ ব্যবস্থাপনা কার্যক্রম চলমান থাকবে এবং এ সংশ্লিষ্ট যানবাহনগুলোর কার্যক্রমও চলমান থাকবে বলে জানানো হয়।

বৈঠকে ঢাদসিক’র কাউন্সিলরবৃন্দ অনলাইন প্লাটফরমে (Google Meet এ) সংযুক্ত থেকে লকডাউন বাস্তবায়নে করণীয় সম্পর্কে অবগত হন।

বৈঠকে ঢাদসিক এর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এ বি এম আমিন উল্লাহ নুরী, প্রধান বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা এয়ার কমডোর মো. বদরুল আমিন, প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা বিগ্রেডিয়ার জেনারেল ডা. শরীফ আহমেদ, সচিব আকরামুজ্জামান, আনিকবৃন্দ, প্রধান সম্পত্তি কর্মকর্তা রাসেল সাবরিন, অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী (বিদ্যুৎ) মো. জাফর আহমেদসহ করপোরেশনের বিভিন্ন বিভাগের বিভাগীয় প্রধানগণ, শীর্ষস্থানীয় কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন। 



সাতদিনের সেরা