kalerkantho

রবিবার । ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮। ১৩ জুন ২০২১। ১ জিলকদ ১৪৪২

দ্রুত ফুসফুস সংক্রমণে বেশির ভাগ মৃত্যু

► করোনায় ২৪ ঘণ্টায় রেকর্ড ৭৮ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৫৮১৯ জন
► মৃত্যুর অন্য প্রধান কারণ ডায়াবেটিস উচ্চ রক্তচাপ ও হৃদরোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১২ এপ্রিল, ২০২১ ০২:৫৭ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



দ্রুত ফুসফুস সংক্রমণে বেশির ভাগ মৃত্যু

দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে রেকর্ড ৭৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। এটি সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টার সরকারি হিসাব। একই সময়ে নতুন শনাক্ত হয়েছে পাঁচ হাজার ৮১৯ জন। সুস্থ হয়েছে চার হাজার ২১২ জন। সব মিলে দেশে এ পর্যন্ত মোট করোনা শনাক্ত হয়েছে ছয় লাখ ৮৪ হাজার ৭৫৬ জন। তাদের মধ্যে সুস্থ হয়েছে পাঁচ লাখ ৭৬ হাজার ৫৯০ জন। মোট মারা গেছে ৯ হাজার ৭৩৯ জন।

দেশে করোনায় মৃত্যুর কারণ বের করতে পর্যবেক্ষণ শুরু করেছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের আইইডিসিআর। তবে এখনো তারা প্রতিবেদন চূড়ান্ত করতে পারেনি। আইইডিসিআর সূত্র জানায়, হাসপাতালগুলোতে যারা মারা যাচ্ছে, তাদের মধ্যে সর্বোচ্চ মৃত্যু ঘটছে ফুসফুসে সংক্রমণের কারণে। তবে তাদেরসহ বেশির ভাগেরই আগে থেকেই ডায়াবেটিস ও উচ্চ রক্তচাপের সমস্যা ছিল। অনেকের আগে থেকে হৃদরোগ, কিডনি বিকল, মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণ, ক্যান্সারের মতো রোগও ছিল।

আইইডিসিআরের পাশাপাশি অন্য বিশেষজ্ঞরাও এবারে করোনায় মৃত্যুর প্রধান কারণ হিসেবে ফুসফুসে সংক্রমণকে চিহ্নিত করেছেন। বাংলাদেশ মেডিসিন সোসাইটির সভাপতি ও মুগদা মেডিক্যাল কলেজের অধ্যক্ষ ডা. আহমেদুল কবীর কালের কণ্ঠকে বলেন, এবার সর্বোচ্চ মৃত্যু ঘটছে ফুসফুসে সংক্রমণের কারণে। হঠাৎ করেই আক্রান্তদের তীব্র শ্বাসকষ্ট দেখা দিচ্ছে। এ ক্ষেত্রে যাদের আগে থেকেই অন্য জটিলতা রয়েছে, তাদের ক্ষেত্রেই সমস্যা বেশি হচ্ছে। আর মৃত্যুর দ্বিতীয় কারণ হিসেবে বলব ডায়াবেটিস, তারপর হাইপার টেনশন, হৃদরোগ এবং তারপর অন্যান্য ক্রনিক রোগ।

হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক ডা. আফজালুর রহমান বলেন, করোনায় প্রধানত ফুসফুস সংক্রমিত হয়। তার পরই এই ভাইরাস হৃদযন্ত্রকে আক্রান্ত করে এবং পর্যায়ক্রমে অন্যান্য অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ ধরে ফেলে।

কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল জামিল আহম্মেদ বলেন, এবার যারা করোনায় মারা যাচ্ছে তাদের প্রধান ও সর্বোচ্চ কারণ হচ্ছে ফুসফুসে আক্রমণ বা সংক্রমণ। এ ছাড়া হাসপাতালে এবার যারাই আসছে সবারই শ্বাসকষ্ট বা ফুসফুসের সংক্রমণ থাকছে।

এদিকে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য অনুসারে, গতকাল সকাল ৮টা পর্যন্ত পূর্ববর্তী ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ৭৮ জনের মধ্যে ৫৩ জন পুরুষ, বাকি ২৫ জন নারী। তাদের মধ্যে সর্বোচ্চ ৪৮ জনের বয়স ছিল ষাট বছরের বেশি। ১৬ জনের বয়স ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে। এ ছাড়া সাতজনের ৪১ থেকে ৫০, ছয়জনের ৩১ থেকে ৪০ বছর এবং একজন ছিল ১০ বছরের কম বয়সী। তাদের মধ্যে ঢাকা বিভাগের ৪৭, চট্টগ্রামের ২০, রাজশাহী ও খুলনার চারজন করে, সিলেটের দুই ও রংপুরের একজন রয়েছে।



সাতদিনের সেরা